IQNA

23:11 - February 10, 2019
সংবাদ: 2607914
সন্ন হজ মৌসুমে সৌদি সরকারের কারণে বাংলাদেশি হজ যাত্রীদের খরচ অতিরিক্ত ২৫ হাজার টাকা গুনতে হবে। সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত করারোপ এবং পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির কারণে এ খরচ বাড়বে। ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বার্তা সংস্থা ইকনা: সূত্র জানায়, সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত করারোপ এবং পরিবহন ব্যয় গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণের বেশি বৃদ্ধি করায় সৌদি রিয়াল ৭১৪ দশমিক ৫০ সমপরিমাণ (১৫ হাজার ৩২৬ টাকা ৫০ পয়সা) বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া গত বছরের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জের ওপর শতকরা ১২ শতাংশ করারোপ করায় ১৫৭ দশমিক ৫০রিয়াল সমপরিমাণ (তিন হাজার ৭০৯ টাকা) বৃদ্ধি পাবে। এ বছর ট্রেন ভাড়া শতভাগ বৃদ্ধি পাওয়ায় ২৬২ দশমিক ৫০ রিয়াল সমপরিমাণ (পাঁচ হাজার ৯৪৫ টাকা) বৃদ্ধি পাবে।

এছাড়াও রাজকীয় সৌদি সরকার কর্তৃক কর আরোপ করায় ২৫ টাকা ২৫ পয়সা বৃদ্ধি পাবে। সব মিলিয়ে ২৫ হাজার টাকার বেশি খরচ বাড়বে।

সূত্র আরও জানায়, সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে চলতি বছরের হজ নীতি ও হজ প্যাকেজ ঘোষণা হতে পারে। গত বছরের তুলনায় চলতি বছর হজ প্যাকেজের খরচ বৃদ্ধি পাবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেন, সৌদি সরকার ২৫ হাজার টাকা খরচ বৃদ্ধি করলেও বাংলাদেশি হজযাত্রী প্রতি খরচ কমবেশি ১২-১৫ হাজার টাকা বৃদ্ধি পেতে পারে। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইতিমধ্যেই বিমান ভাড়া ১০ হাজার টাকা কমানো হয়েছে। সে ক্ষেত্রে হজ প্যাকেজে খরচ ১৫ হাজার টাকার বেশি বাড়বে না। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।

উল্লেখ্য, গত বছরের মতো এবারও বাংলাদেশ থেকে সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে মোট এক লাখ ২৭ হাজারের বেশি হজযাত্রী সৌদি যাবেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ১৭ হাজারের বেশি হজযাত্রী যাবেন।

ইতিমধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয় ও সৌদি সরকারের মধ্যে হজ চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। চুক্তিতে হজযাত্রীর কোটা গত বছরের সমসংখ্যক রাখলেও ধর্ম মন্ত্রণালয় অতিরিক্ত ২৫ হাজার কোটা বৃদ্ধির আবেদন জানিয়েছে। গণকণ্ঠ

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: