IQNA

21:38 - May 19, 2019
সংবাদ: 2608578
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তেহরানে অনুষ্ঠিত ২৭তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রদর্শনীতে ইয়েমেনের আনসারুল্লাহর বাহ্যিক যোগাযোগ কর্মকর্তা বলেছেন: ইয়েমেনে সৌদি আরবের পাঁচ বছরের হামলায় ১০৪২টি মসজিদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বার্তা সংস্থা ইকনা: ইয়েমেনের আনসারুল্লাহর বাহ্যিক যোগাযোগ কর্মকর্তা “আদনান কুফলাহ” শুক্রবার তেহরানে অনুষ্ঠিত ২৭তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রদর্শনীতে বলেন: সৌদি আরবের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া অনেক মসজিদ মহানবী (সা.)এর সাহাবিগণ এবং ইমামগণ নির্মাণ করেছেন। এই হামলায় মসজিদ থাকা পবিত্র কুরআনের অনেক পাণ্ডুলিপিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আদনান বলেন: সৌদি আরব ইয়েমেনে হামলা চালিয়েছে এবং এই হামলায় তারা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের থেকে অনেক অস্ত্র ব্যবহার করেছে। তবে ইয়েমেনের নাগরিকরা জানে কিভাবে ইসলাম ও আহলে বায়েত (আ.)কে রক্ষা করতে হয়।

তিনি বলেন: এই অপরাধ মানব ইতিহাসের সর্ববৃহৎ অপরাধ। সৌদি আরবের এই আগ্রাসনের ফলে আমরা পূর্বের তুলনায় কুরআন ও আহলে বায়েত (আ.) প্রতি আরও অধিক আস্থা রাখছি।

আদনান বলেন: পবিত্র কুরআন এই পবিত্র রমজান মাসে নাযিল হয়েছে। এটা এমন একটা সংবিধান যা আমাদের জীবন পরিচালনার জন্য মহান আল্লাহ নাযিল করেছেন। অথচ এই পবিত্র সংবিধানকে অনেকে ভুলে গিয়েছে।

তিনি বলেন: পবিত্র কুরআনের নির্দেশ ও উপদেশগুলো আমাদের জীবনে বাস্তবায়িত করতে হবে। যারা এই নির্দেশ ও উপদেশগুলো মান্য করবে না, তাদেরকে শাস্তি পেতে হবে।

উল্লেখ্য, ইরানের রাজধানী তেহরানের ইমাম খোমেনী মুসাল্লায় ‌‌১১ই মে থেকে ২৭তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। উক্ত কুরআন প্রদর্শনী ২৫শে মে পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। iqna

 

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: