IQNA

21:08 - June 26, 2019
সংবাদ: 2608776
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, আমেরিকার আলোচনার প্রস্তাবের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ইরানি জাতিকে নিরস্ত্রীকরণ এবং শক্তির উপাদানগুলোকে নিশ্চিহ্ন করা।

পার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: তিনি আজ (বুধবার) দেশের বিচার বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এক সমাবেশে এ কথা বলেন। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, মার্কিন আলোচনার প্রস্তাব প্রতারণামাত্র।

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী আরও বলেন, মার্কিন প্রশাসন ইরানের শক্তি ও সক্ষমতায় ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। তারা এখন আলোচনার মাধ্যমে ইরানের শক্তি-সামর্থ্যকে হরণ করতে চায়। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে ঘৃণ্য ও বড় দুর্নীতিবাজ সরকার হচ্ছে মার্কিন সরকার। এই সরকার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যুদ্ধ, বিবাদ ও লুটতরাজের মূল হোতা। আর এই ঘৃণিত সরকারই প্রতিদিন ইরানের সম্মানিত জাতিকে গালিগালাজ করছে, নানা অপবাদ দিচ্ছে। কিন্তু আমেরিকা এ ধরণের ঘৃণ্য আচরণের মাধ্যমে ইরানি জনগণকে তাদের পথ থেকে সরাতে পারবে না।

তিনি বলেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা হচ্ছে ইরানি জনগণের বিরুদ্ধে প্রকাশ্য জুলুম। গত চার দশকে ইরানিদের পরিচিতির সঙ্গে ইসলামি বৈশিষ্ট্যের মিশ্রণ জোরদার হওয়ায় বিশ্বের বলদর্পীদের চাপ আমাদের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলতে পারে নি।

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী আরও বলেন, ইরানি জাতি মজলুম তবে শক্তিশালী। আল্লাহর রহমতে এই জাতি শত্রুর মোকাবেলায় পাহাড়ের মতো দৃঢ় ও শক্তিশালী এবং দৃঢ়তার সঙ্গে উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখবে। এভাবেই নিজের সব লক্ষ্য অর্জন করবে।

আমেরিকা মানবাধিকারকে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সর্বোচ্চ নেতা আমেরিকার উদ্দেশে বলেন, আপনারা ৩০০ নিরপরাধ বিমানযাত্রীকে আকাশে হত্যা করেছেন, সৌদি আরবের সহায়তায় ইয়েমেনে অব্যাহতভাবে অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছেন আবার মানবাধিকারের কথা বলছেন!  iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: