IQNA

19:56 - February 26, 2020
সংবাদ: 2610306
তেহরান (ইকনা)- আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাখাইনে রোহিঙ্গা গ'ণহ'ত্যায় মিয়ানমারের বি'রু'দ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) ল'ড়ছে গাম্বিয়া। তাদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ল'ড়াইয়ে যোগ দিচ্ছে মালদ্বীপ। সেজন্য আরব সাগরের দ্বীপরাষ্ট্রটি আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে প্রখ্যাত ব্রিটিশ মানবাধিকারকর্মী আমাল আলামুদ্দিনকে। মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) মালদ্বীপ সরকারের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের বিবৃতির বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ খবর দিয়েছে। মালদ্বীপের প্রস্তাব পেয়ে আমাল আলামুদ্দিন বলেন, মিয়ানমারে সং'ঘটিত গণহ'ত্যার জ'বা'বদি'হির বিষয়টি দীর্ঘ সময় ধরে ঝুলে আছে। আমি রোহিঙ্গাদের ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য এই গুরুত্বপূর্ণ প্রচেষ্টার অংশ হতে মুখিয়ে আছি। ২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী নির্বিচারে গণহ'ত্যা ও ধ'র্ষ'ণ শুরু করলে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে থাকে রোহিঙ্গারা। 

সেই দফায় প্রায় সাড়ে ৭ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় নেয় বাংলাদেশে। তার আগে থেকে বাংলাদেশে আশ্রিত ছিল আরও ৪ লাখ রোহিঙ্গা। নতুন করে মিয়ানমারের ওই দ'ম'ন-পী'ড়ন সংবাদমাধ্যমে প্রচার হলে বিশ্বব্যাপী নি'ন্দার ঝড় ওঠে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চা'পের মুখে এক পর্যায়ে বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা করে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়। কিন্তু রাখাইনকে উ'ত্ত'প্ত ও অনি'রাপদ রেখে মিয়ানমার এ বিষয়ে তাদের দূর'ভিস'ন্ধিই প্রকাশ করেছে বারবার।

এর মধ্যে রোহিঙ্গা গণহ'ত্যার অ'ভিযো'গ এনে গত বছরের নভেম্বরে মিয়ানমারের বি'রু'দ্ধে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মামলা করে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। সে মামলা শুনানিতে গড়ালে গাম্বিয়ার পক্ষে নেতৃত্ব দেন দেশটির বিচারবিষয়ক মন্ত্রী আবুবকর তামবাদু। অন্যদিকে মিয়ানমারের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন দেশটির নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সুচি।

সূত্র: mtnews24

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: