IQNA

21:37 - July 04, 2017
সংবাদ: 2603371
ইমাম মাহদী (আ.) হলেন আল্লাহ ও রাসূলের (সা.) প্রতিশ্রুত শেষ জামানায় মানব জাতির পরিত্রাণদাতা ও ত্রাণকর্তা। তিনি বর্তমান যুগের আল্লাহ মনোনীত ইমাম ও পথপ্রদর্শক।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: মহান আল্লাহর নির্দেশে ইমাম মাহদী (আ.) পুনরায় আবির্ভূত হবেন এবং আমরা তাকে অতি সহজেই দেখতে পাব। তিনি যখন আবির্ভূত হবেন, তখন এ পৃথিবী আবার ন্যায় ও ইনসাফে পরিপূর্ণ হবে।

একটি বিষয় আমাদের সকলেরই জানার বিশেষ আগ্রহ রয়েছে; তা হচ্ছে তিনি আবির্ভূত হওয়ার পর পবিত্র কুরআন শিক্ষার ধরণ কেমন হবে এবং মানুষ কিভাবে কুরআন শিক্ষা করবে। যেহেতু পবিত্র কুরআন হল আল্লাহর পক্ষ থেকে নাযিলকৃত সর্বশেষ ও পূর্ণাঙ্গ আসমানি কিতাব এবং মানব জীবনে প্রয়োজনীয় যাবতীয় বিষয়াদি এ কিতাবে যথাযথভাবে বর্ণিত হয়েছে।

এ সম্পর্কে আমিরুল মু’মিনিন আলী (আ.) থেকে একটি হাদীস বর্ণিত হয়েছে, এ হাদীসে তিনি উল্লেখ করেছেন,

«إذا قام قائم آل محمد ضرب فساطیط  لمن یعلم الناس القرآن علی ما أنزل الله جل جلاله؛

অর্থাৎ যখন আমাদের বংশের আল কায়েম তথা ইমাম মাহদী আবির্ভূত হবেন, তখন বিভিন্ন স্থানে তাঁবু নির্মিত হবে এবং সেখানে পবিত্র কুরআন শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে।

সূত্র: আল এরশাদ, ২য় খণ্ড, পৃ. ৩৮৬
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: