IQNA

18:30 - March 01, 2020
সংবাদ: 2610333
তেহরান (ইকনা)- সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরোধী ও সমর্থকদের সংঘর্ষে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে দিল্লিতে চলা সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৪২ জন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। উগ্রহিন্দুরা পুলিশের সামনেই মুসলমানদের ঘরবাড়ি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদসহ দোকানপাটে বেছে বেছে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি দিয়ে মুসলমানদের প্রকাশ্যে পেটানো হয়েছে। মসজিদ পুড়িয়ে দিয়ে মিনারে ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে হনুমানের ছবি।

ঠিক এই সময় চাঞ্চল্যকর একটি তথ্য ফাঁস করেছে ভারতের গণমাধ্যম। যেই নাগরিকত্ব আইন নিয়ে এত কিছু, সেখানে কি না খোদ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নাগরিকত্বের কোনও কাগজপত্র নেই। জন্মসূত্র তিনি ভারতীয়।

তথ্যের অধিকার আইনে (আরটিআই) মোদির নাগরিকত্ব নিয়ে এক ব্যক্তির প্রশ্নের জবাবে এমনটাই জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর (পিএমও)। ভারতের প্রভাবশালী পত্রিকা আনন্দবাজার রোববার তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি শুভঙ্কর সরকার নামে এক ব্যক্তি আরটিআই-এর মাধ্যমে জানতে চান প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্বের কাগজপত্র রয়েছে কি না। তারই উত্তরে পিএমও-র সচিব প্রবীণ কুমার জানান, ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনের ৩ ধারা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী জন্মসূত্রেই ভারতীয়।

প্রশ্ন উঠেছে, এর পরে নাগরিকত্বের নথি চাওয়া হলে আমজনতাও যদি জন্মসূত্রে নাগরিকত্বের দাবি তোলে, তা কি গ্রাহ্য হবে? স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এর আগে একাধিক বার জানিয়েছে, ২০১১ ও ২০১৫ সালের জাতীয় জনগণনা পঞ্জি প্রক্রিয়ার পরে দেয়া পরিচয়পত্র যাদের কাছে নেই তারা নাগরিক নন।
সূত্র: rtvonline

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: