IQNA

23:53 - April 01, 2020
সংবাদ: 2610518
তেহরান (ইকনা)- ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি বলেছেন, ইরাকের অভ্যন্তরে মার্কিন সামরিক বাহিনী যে সমস্ত তৎপরতা চালাচ্ছে তা সরাসরি দেশটির জাতীয় সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন। মার্কিন বাহিনীর এ সমস্ত তৎপরতা ইরাকের নিরাপত্তা বিনষ্টের পাশাপাশি পুরো মধ্যপ্রাচ্যের জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারেন।

গতকাল (মঙ্গলবার) সাইয়্যেদ মুসাভি এক বিবৃতিতে বলেন, ইরাকের জনগণ, সরকার এবং জাতীয় সংসদ যে ধরনের আশা-আকাঙ্খা পোষণ করে মার্কিন বাহিনীর তৎপরতা তার সম্পূর্ণ বিপরীত। আব্বাস মুসাভি বলেন, দেশটি থেকে সেনা প্রত্যাহারের জন্য ইরাকের জাতীয় সংসদে বিল পর্যন্ত পাস হয়েছে।

গত রোববার ইরাকের নিরাপত্তা সূত্রগুলো জানিয়েছে, আনবার প্রদেশের আইন আল-আসাদ ঘাঁটিতে নতুন করে মার্কিন সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। আমেরিকা যখন ইরাকের পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে তখন আইন আল-আসাদ ঘাঁটিতে নতুন করে সেনা মোতায়েনের ঘটনা ঘটলো।

আরবি ভাষার বার্তা সংস্থা আল-মালোমাহ জানিয়েছে, মার্কিন সেনা ও সামরিক উপদেষ্টাদের নিয়ে একটি বিমান আইন আল-আসাদ ঘাঁটিতে অবতরণ করে। এর এক সপ্তাহ আগে নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছিল যে, মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন সেনা কমান্ডারদেরকে ইরাকের পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: