IQNA

19:01 - December 05, 2017
সংবাদ: 2604485
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সংখ্যালঘু উন্নয়নে ২০১১ সালে ৪৭২ কোটি টাকার যে বাজেট ছিল তা ছয় বছরে আট গুণ বৃদ্ধি করে তিন হাজার ৭১৭ কোটি টাকা করা হয়েছে।

সংখ্যালঘু উন্নয়নে ৮ গুণ বেশি অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে: মমতা

 


বার্তা সংস্থা ইকনা: আজ (মঙ্গলবার) পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কোলকাতায় সংখ্যালঘু বিষয়ক ও মাদ্রাসা শিক্ষা দফতরের বার্ষিক অনুষ্ঠানে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, ‘সংখ্যালঘু ছাত্র-ছাত্রীরা পড়াশোনা করে মানুষের মতো মানুষ হোক। ভাববেন না আমি শুধু সংখ্যালঘুদের কথা ভাবি। আমি সকলের কথা ভাবি। সবাইকে নিয়ে কাজ করি।’

মমতা বিভিন্ন প্রকল্পের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকার সংখ্যালঘু ছাত্র-ছাত্রীদের স্কলারশিপের টাকা বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানান। তিনি বলেন, ‘একাধিক প্রকল্পের টাকা বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা আমাদের টাকা দিয়ে প্রকল্পগুলো চালাচ্ছি। ছাত্র-ছাত্রীদের স্কলারশিপও বন্ধ হয়েছে বহুদিন। আমরা নিজেদের টাকা দিয়ে স্কলারশিপ দিয়েছি। এবারও বলেছি, নিজেদের টাকা দিয়ে দেবো। সংখ্যালঘু ছেলে-মেয়েদের পড়াশোনা বন্ধ হতে দেবো না। ওরা মানুষ হবে না, এটা আমরা দেখতে চাই না।’

মমতা বলেন, ‘সিপিএম যে দেনা করে গেছে, চল্লিশ হাজার কোটি টাকা দেনা শোধ করেও আমরা ওই কাজ করছি। গত ছয় বছরে এক কোটি ৭১ লাখ সংখ্যালঘু ছেলে-মেয়ে স্কলারশিপ পেয়েছে যা সর্বকালীন রেকর্ড।’

মমতা কোলকাতার এক বেসরকারি স্কুলে শিশু নির্যাতন প্রসঙ্গে বলেন, ‘জি ডি বিড়লা স্কুলে যা ঘটেছে, তা ঠিক নয়। শিক্ষকরা আমাদের অভিভাবক। সেজন্য তাদের আরো দায়িত্ব নিতে হবে। দু’একজন খারাপ হতে পারে। গোটা শিক্ষক সমাজ খারাপ নন।’ এ ব্যাপারে দোষী শিক্ষকের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, কোলকাতার জি ডি বিড়লা স্কুলে এক শিশু ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে সেখানে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। অভিভাবকরা গত পাঁচ দিন ধরে সেখানে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। অভিযুক্ত দু’জন শিক্ষক গ্রেফতার হলেও তারা ওই স্কুলের প্রিন্সিপ্যালকে গ্রেফতারে দাবি জানিয়েছেন। পার্সটুডে

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: