IQNA

0:50 - October 02, 2019
সংবাদ: 2609345
আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: সৌদি আরবের সর্ববৃহৎ তেল স্থাপনা আরামকোর উপর ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন ও তাদের সমর্থিত সেনাদের ড্রোন হামলার পর তেল উৎপাদনের পরিমাণ সর্বনিম্নে নেমে গেছে। ২০১১ সালের পর এখন তেলের উৎপাদন সবচেয়ে কম।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ১৪ সদস্যের সংগঠন ওপেকের তেল উৎপাদন আগস্ট মাসের চেয়ে সেপ্টেম্বর মাসে প্রতিদিন সাড়ে সাত লাখ ব্যারেল কমে গেছে।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইয়েমেনের হুথি সমর্থিত সেনাদের আকস্মিক হামলায় সৌদি আরবের আরামকো তেল স্থাপনা থেকে প্রতিদিন ৫৭ লাখ ব্যারেল তেলের উৎপাদন কমে যায় যা মোট উৎপাদনের অর্ধেক। সৌদি আরবের এই তেলের পরিমাণ আন্তর্জাতিক বাজারে শতকরা পাঁচ ভাগ।

আরামকো হামলার পর অপরিশোধিত তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে শতকরা ২০ ভাগ বেড়ে যায় এবং প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ৭২ ডলারে উঠে যায়। আন্তর্জাতিক জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হুথিদের এই হামলা বিশ্ব অর্থনীতি ও তেল বাজারের জন্য হার্ট অ্যাটাকের মতো ঘটনা।

হামলার কারণে সৌদি আরব সেপ্টেম্বর মাসে গড়ে প্রতিদিন ৯০ লাখ ৫০ হাজার ব্যারেল তেল সরবরাহ করেছে যা আগস্ট মাসের চেয়ে প্রতিদিন সাত লাখ ব্যারেল কম।

আরামকো হামলার পর গতকাল (সোমবার) নিউইয়র্কভিত্তিক রেটিং এজেন্সি ফিচ সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের বৈদেশিক মুদ্রার অবস্থান ‘এ প্লাস’ থেকে নামিয়ে ‘এ’ করে দিয়েছে। অবশ্য এতে সৌদি আরব নাখোশ হয়েছে। পার্সটুডে

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: