IQNA

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ:
17:46 - November 02, 2019
সংবাদ: 2609557
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, আল্লামা সাইয়্যেদ জাফর মুর্তজা আমেলী এই অঞ্চলে সর্বদা তাকফিরিদের প্রতিরোধ করেছেন।

বার্তা সংস্থা ইকনা’র রিপোর্ট: সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ গতকাল বিকালে সাইয়্যেদ জাফর মুর্তজা আমেলীর মৃত্যুর ৭ দিন অতিবাহিত হাওয়ার উপলক্ষে বৈরুতের দক্ষিণাঞ্চলীয় দাহিয়া অঞ্চলে অবস্থিত ইমাম হাসান মুজতাবা (আ.) কমপ্লেক্সে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তৃতা পেশ করেছেন।
প্রথমে তিনি এই সম্ভ্রান্তের মৃত্যুতে তার পরিবারের প্রতি শোক প্রকাশ করে বলেছেন: এই আলেমের মৃত্যুর ফলে মুসলিম বিশ্ব ও বিজ্ঞানের বড় ক্ষতি হয়েছে।

আল্লামা সাইয়্যেদ জাফর মুর্তজা আমেলী একজন ধর্মীয় পণ্ডিত, মুফাস্সিরে কুরআন, ইসলামী ও শিয়া ইতিহাসের বিশেষজ্ঞ, একজন শিয়া আলেম। তিনি ইরানের কোম এবং লেবাননের মাদ্রাসার একজন বিজ্ঞ বিদ্বান ছিলেন। আল্লামা সাইয়্যেদ জাফর মুর্তজা আমেলী ১৩৬৪ হিজরিতে জন্মগ্রহণ করেন এবং ৭৫ বছর বয়সে বৈরুতের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ আরও বলেন: তার সংগঠন লেবাননের আকাশসীমাকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের যেকোনো বিমানের উপস্থিতি থেকে মুক্ত রাখার চেষ্টা করছে। তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ইসরাইল লেবাননের আকাশ উড়ন্ত যেকোনো কিছু পাঠালে তাকে গুলি করতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করবে না হিজবুল্লাহ।

শুক্রবার রাতে রাজধানী বৈরুতে টেলিভিশনের মাধ্যমে সমর্থকদের উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ আরো বলেন, বৃহস্পতিবার হিজবুল্লাহর যোদ্ধারা উপযুক্ত অস্ত্রের সাহায্যে ধাওয়া দিয়ে একটি ইসরাইলি ড্রোনকে লেবাননের আকাশসীমা থেকে বের করে দিয়েছে।

তিনি বলেন, এই ঘটনা প্রমাণ করেছে হিজবুল্লাহর একটি সামরিক নেতৃত্ব রয়েছে এবং এটি অভ্যন্তরীণ বিষয়গুলোতেও নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছে।

বিগত বছরগুলোতে হিজবুল্লাহর হাতে উপযুক্ত সমরাস্ত্র না থাকার সুযোগে ইহুদিবাদী ইসরাইল যখন তখন লেবাননের আকাশসীমা লঙ্ঘন করত। গত ২৫ আগস্ট সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ এক ভাষণে বলেছিলেন, এখন থেকে তার দেশের আকাশসীমা লঙ্ঘন করলে সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, আমাদের আকাশসীমায় অনুপ্রবেশকারী প্রতিটি ড্রোনকে গুলি করতে দ্বিধা করবে না হিজবুল্লাহ। সংগঠনটির মহাসচিব বলেন, লেবাননের আকাশে ইসরাইলি ড্রোন পাঠানোর অর্থ এদেশের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করা।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ তার শুক্রবারের ভাষণের অন্য অংশে লেবাননের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার জন্য আমেরিকাকে দায়ী করে বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে বিক্ষোভ, সহিংসতা ও সংঘর্ষ ছড়িয়ে দিয়ে নিজের অশুভ লক্ষ্য হাসিলের চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন। লেবাননের চলমান সরকার বিরোধী বিক্ষোভ এবং এর জের ধরে প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরির পদত্যাগের প্রতি ইঙ্গিত করে হিজবুল্লাহ মহাসচিব এ মন্তব্য করেন।  iqna

 

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: