IQNA

21:55 - May 21, 2020
সংবাদ: 2610821
তেহরান (ইকনা): আগামীকাল শুক্রবার বিশ্ব কুদস দিবস। করোনাভাইরাসের কারণে ইরানে এবার বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে না। তবে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। বিশ্ব কুদস দিবস উপলক্ষে আগামীকাল তেহরানের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী গোটা বিশ্বের মুসলমানদের উদ্দেশে ভাষণ দেবেন।

সর্বোচ্চ নেতার ভাষণ ইরানের আন্তর্জাতিক রেডিও-টিভি চ্যানেলসহ সব গণমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারিত হবে। ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রতিষ্ঠাতা ইমাম খোমেনী (রহ.) রমজান মাসের শেষ শুক্রবারকে বিশ্ব কুদস দিবস হিসেবে পালনের আহ্বান জানিয়েছিলেন এবং তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে ১৯৭৯ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী এ দিবস পালন করা হয়।

ইহুদিবাদীদের কবল থেকে মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলার শহর আল-কুদস বা বায়তুল মুকাদ্দাসকে মুক্ত করার মহান লক্ষ্যে এ দিবস পালন করার আহ্বান জানান ইমাম খোমেনী (রহ.)। প্রতি বছর ইরানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কুদস দিবসে ব্যাপক ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

তবে চলতি বছর বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিধিবিধান পালন করার কারণে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে কুদস দিবসের বিক্ষোভ মিছিল করা সম্ভব হবে না।

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানও ঘোষণা করেছে, করোনাভাইরাসের কারণে কুদস দিবসে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হবে না। কেবল রাজধানী তেহরানে ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি'র তত্ত্বাবধানে মোটর শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতীকী অর্থে একটা নির্দিষ্ট এলাকা থেকে অন্য একটি নির্দিষ্ট এলাকায় গাড়ির শোভাযাত্রা যাবে।

ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি এই দায়িত্ব পালন করবে। তেহরানে কোনো জনসমাবেশ হবে না। এছাড়া ইরানের যে ২১৮টি শহরকে সাদা (কম ঝুঁকিপূর্ণ) অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা দিয়ে জুমার নামাজ পড়ানো হচ্ছে সেসব শহরে স্বাস্থ্যবিধি এবং নিয়ম নীতি অনুসরণ করে কুদস দিবস পালন করা হবে। মানুষ জুমার নামাজে অংশ নিয়ে সেখানকার লোকজন কুদস দিবস পালন করবে। মিছিলের মাধ্যমে নয়। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: