IQNA

0:01 - February 21, 2021
সংবাদ: 2612284
তেহরান (ইকনা):  মিয়ানমারের সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ সহিংস হয়ে উঠছে। আজ শনিবার দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ। এতে দুজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে চিকিৎসক ও স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ তাঁদের ওপর গুলি চালায়।
মান্দালয় শহরের জরুরি সেবাদানকারী সংগঠন পরহিতা দারহির নেতা কো অং বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ২০ জন মানুষ আহত হয়েছেন। মারা গেছেন ২ জন।
 
এর আগে মিয়ানমারে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ শুরুর পর গতকাল শুক্রবার প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ২০ বছর বয়সী মিয়া থোতে থোতে খায়ং নামের এক বিক্ষোভকারী রাজধানী নেপিডোর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ৯ ফেব্রুয়ারি নেপিডোতে সেনাশাসনবিরোধী বিক্ষোভকালে তিনি গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন।
 
সামরিক জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে আজও মিয়ানমারের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার মানুষ। সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হয়েছে ইয়াঙ্গুন শহরে। এতে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর সদস্য ছাড়াও কবি, পরিবহনশ্রমিক ও অন্যান্য পেশার মানুষ অংশ নেন। তাঁরা সেনা অভ্যুত্থানের সময় আটক মিয়ানমারের নেতা অং সান সু চি ও তাঁর দলের নেতাদের মুক্তির দাবি জানান।
 
গত নভেম্বরে সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। ওই নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ১ ফেব্রুয়ারি রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। আটক করা হয় এনএলডির নেতা সু চিসহ দলের শীর্ষ নেতাদের। সেই থেকে রাজপথে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ চলছে। শান্তিপূর্ণ ওই বিক্ষোভ দমাতে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন ও বলপ্রয়োগের ঘটনা ঘটছে। বিক্ষোভকারীদের ওপর কাঁদানে গ্যাস, জলকামান ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের মতোও ঘটনা ঘটছে অহরহ।
 
আজ মান্দালয় শহরে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন। এ সময় বিক্ষোভকারীদের ওপর কাঁদানে গ্যাস ও গুলি ছোড়ে পুলিশ। জবাবে কিছু বিক্ষোভকারী পুলিশের ওপর ইটপাটকেল ছোড়েন, গুলতি দিয়ে ইট ছোড়েন।
 
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ও মান্দালয়ের জরুরি সেবাদানকারী সংগঠনের কর্মীরা বলেছেন, বিক্ষোভের সময় মাথায় আঘাত লেগে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয়। একজন বেসরকারি চিকিৎসক মান্দালয়ের পুলিশের হামলায় দুজনের মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, একজনের মাথায় গুলি করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। অন্যজনের বুকে গুলি লাগে। পরে তিনি মারা যান।
 
তবে এই বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। প্রথম আলো
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: