IQNA

9:56 - November 17, 2021
সংবাদ: 3470992
তেহরান (ইকনা): ইসরায়েলের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলার বিচার আবার শুরু হয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।
গতকাল মঙ্গলবার এই বিচার আবার শুরু হয়। নেতানিয়াহু এখন ইসরায়েলের পার্লামেন্টের বিরোধীদলীয় নেতা। গত জুনে তাঁর প্রতিপক্ষরা এক হয়ে জোট সরকার গঠন করে। এতে নেতানিয়াহুর দীর্ঘ শাসনামলের অবসান ঘটে।
 
গতকাল নেতানিয়াহু জেরুজালেমের আদালতে হাজির হন। এ সময় তাঁর সঙ্গে আগের মতো বিশাল নিরাপত্তা বহর ছিল না।
 
নেতানিয়াহুকে ঘুষ, প্রতারণা ও বিশ্বাসভঙ্গের পৃথক তিনটি অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে।
 
দুর্নীতির মামলায় ২০১৯ সালে নেতানিয়াহুকে অভিযুক্ত করা হয়। তিনি তখন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ইসরায়েলে নেতানিয়াহুই প্রথম ব্যক্তি, যিনি প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত হন। অভিযুক্ত হওয়ার পরও তিনি প্রধানমন্ত্রী পদ ছাড়েননি। 
 
নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো—তিনি ধনাঢ্য ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে উপহার নিয়েছেন। গণমাধ্যমের কাছ থেকে অধিকতর ইতিবাচক প্রচার পেতে তিনি মিডিয়া মোগলদের অবৈধ রাষ্ট্রীয় সুবিধা দিয়েছেন।
 
শুরু থেকেই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন নেতানিয়াহু। তাঁর ভাষ্য, অভিযোগগুলো ষড়যন্ত্রমূলক।
 
নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বেজেক মামলা সবচেয়ে গুরুতর বলে বিবেচিত হচ্ছে। বেজেক টেলিকমিউনিকেশন গ্রুপের সঙ্গে নেতানিয়াহুর লেনদেনের বিষয়টি তাঁর সাবেক মুখপাত্র নির হেফেৎজের সাক্ষ্যে উঠে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।
 
নেতানিয়াহুর আইনজীবীরা যুক্তি দিয়েছেন, হেফেৎজের সাক্ষ্য খণ্ডন করতে তাঁরা অপ্রস্তুত।
 
সরকারি আইনজীবীরা বলেছেন, হেফেৎজের কাছে যে তথ্য-প্রমাণ আছে, তা সম্প্রতি ফাঁস হওয়ায় তাঁরা অনুতপ্ত। তা সত্ত্বেও তাঁর সাক্ষ্যগ্রহণ করা উচিত।
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: