IQNA

18:18 - February 07, 2022
সংবাদ: 3471396
তেহরান (ইকনা): আফ্রিকান ইউনিয়নে ইহুদিবাদী ইসরাইলের পর্যবেক্ষকের মর্যাদা লাভের বিষয়ে আলোচনা বাতিল করে দিয়েছে সংস্থাটি। আফ্রিকান ইউনিয়নের এ সিদ্ধান্তকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের জন্য একটি বিপর্যয় বলে মনে করা হচ্ছে।

ফিলিস্তিনের ইসলামে জিহাদ আন্দোলন আফ্রিকান ইউনিয়নের এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে। সংগঠনটির শীর্ষ পর্যায়ের নেতা আহমদ আল- মুদাল্লাল বলেছেন, যেসব দেশ ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার মধ্যদিয়ে উচ্চ আশা পোষণ করেছিল এই ঘটনায তাদের জন্য বিপর্যয়। তিনি বলেন, আফ্রিকান ইউনিয়নের এই পদক্ষেপ আবারো ফিলিস্তিনি ইস্যুর প্রতি আফ্রিকার দেশগুলোর সমর্থনের কথা তুলে ধরেছে।
 
গতকাল (রোববার) আফ্রিকান ইউনিয়নের ৫৫টি সদস্য দেশ সর্বসম্মতভাবে ইসরাইলের পর্যবেক্ষকের মর্যাদা দেয়ার বিষয়টি স্থগিত রাখার সিদ্ধান্তে পৌঁছায়।
 
ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় গতকাল আফ্রিকান ইউনিয়নের বার্ষিক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেয়া একজন কূটনীতিকের বরাত দিয়ে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি বলেছে, ইসরাইলকে পর্যবেক্ষকের মর্যাদা দেয়ার বিতর্ক স্থগিত করা হয়েছে এবং বিষয়টি নিয়ে আরো পর্যালোচনা করার জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে। ওই কমিটিতে থাকবে দক্ষিণ আফ্রিকা, আলজেরিয়া, রুয়ান্ডা এবং গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র। এরমধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং আলজেরিয়া ইসরাইলকে এ সংস্থায় পর্যবেক্ষক মর্যাদা দেয়ার বিরোধিতা করে আসছে।
 
ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের নেতা মুদাল্লাল আশা করেন, আফ্রিকার দেশগুলো ফিলিস্তিনি জনগণের সংগ্রামের প্রতি সমর্থন দেয়া অব্যাহত রাখবেন এবং দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবেন। তিনি আরো বলেন, ইসরাইলকে আফ্রিকান ইউনিয়নে প্রবেশের সুযোগ দিলে অন্ধকারাচ্ছন্ন মহাদেশের সম্পদ তারা লুট করবে,  কৌশলগত পানিসীমার নিয়ন্ত্রণ নেবে এবং আফ্রিকার দেশগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্ব সংঘাত উসকে দেবে। iqna
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: