IQNA

অনুমোদনবিহীন হজের জন্য ভারী জরিমানা ধার্য করল সৌদি আরব

20:06 - June 30, 2022
সংবাদ: 3472062
তেহরান (ইকনা): সৌদি কর্মকর্তা এক বিবৃতিতে বলেছেন, অনুমোদনবিহীন হজ পালন করলে ভারী জরিমানা গুনতে হবে।
সরকারি অনুমোদন নেই- এমন প্রত্যেক হজযাত্রীকে ১০ হাজার সৌদি রিয়াল (২ লাখ ৪৮ হাজার ৯১১ টাকা) জরিমানা গুণতে হবে। আজ বুধবার এক আদেশে এ তথ্য জানিয়েছে সৌদি আরব সরকার।
 
সরকারের জননিরাপত্তা বিভাগের মুখপাত্র সামি আল শুয়াইরেখ সাংবাদিকদের জানান, অবৈধ হাজিদের আটক করতে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা এরই মধ্যে মক্কায় হাজিদের আবাস ও বিভিন্ন সড়কে টহল ও তল্লাশি শুরু করেছেন।
 
এ ছাড়া, অর্থের বিনিময়ে হজ বিষয়ক বিভিন্ন পরিষেবা প্রদানের প্রতারণামূলক বিজ্ঞাপন দেওয়ায় বুধবার ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন সামি আল শুয়াইরেখ। খবর আরব নিউজের।
 
‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কোরবানিসহ হজ সংক্রান্ত বিভিন্ন পরিষেবা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে হাজিদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই এই গ্রেপ্তারকৃতদের উদ্দেশ্য ছিল,’ বলেন শুয়াইরেখ।
 
হজ ইসলাম ধর্মের পঞ্চম স্তম্ভ। এই ধর্মের বিধান অনুযায়ী, প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলিমের জন্য জীবনে অন্তত একবার হজ করা ফরজ (অবশ্য পালনীয় কর্তব্য)।
 
করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালে বিদেশিদের জন্য সীমান্ত বন্ধের পাশাপাশি হজেও নিষেধাজ্ঞা দেয় সৌদি সরকার। ২০২১ সালে কেবল সৌদি আরবের হাজিদের হজের অনুমতি দেওয়া হয়।
 
মহামারির দুই বছর পর, ২০২২ সালে বিদেশি হজযাত্রীদের জন্য ফের সীমান্ত খুলে দেয় সৌদি সরকার। সরকারি আদেশ অনুযায়ী চলতি বছর ১০ লাখ বিদেশি হজযাত্রীকে হজ পালনে সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
 
 
এই সংখ্যা অবশ্য মহামারিপূর্ব সময়ের তুলনায় অর্ধেক। ২০১৯ সালে, অর্থাৎ করোনা মহামারির ঠিক আগের বছরে দেশটিতে হজের জন্য প্রবেশ করেছিলেন ২০ লাখেরও বেশি বিদেশি হজযাত্রী।
 
উল্লেখ্য যে, এ বছর প্রায় ১০ লাখ হজযাত্রী সৌদি আরবে হজ করতে যাবেন। ইন্দোনেশিয়া এক লাখ ৫১ জন হাজী প্রেরণের মাধ্যমে ২০২২ সালে হাজীর সংখ্যার দিক থেকে শীর্ষ স্থানে রয়েছে।  iqna
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* :