IQNA

23:29 - February 12, 2017
সংবাদ: 2602520
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রোহিঙ্গা পরিস্থিতি একটি মানবিক সংকট। তাই পর্যটন শহর কক্সবাজারের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই রোহিঙ্গাদের ঠেঙ্গারচরে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ওখানে তাদের শুধু পুনর্বাসন না, জীবিকাও নিশ্চিত করা হবে।
‘রোহিঙ্গাদের শুধু পুনর্বাসন নয়, জীবন-জীবিকাও নিশ্চিত করা হবে’
বার্তা সংস্থা ইকনা: রোববার সকালে কক্সবাজার জেলা শহরের কলাতলী ডলপিন স্কয়ার হতে সমুদ্র সৈকত পর্যন্ত সড়কের সৌন্দর্যবর্ধন ও প্রশস্তকরণ কাজ উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। ১৭০ মিটার দৈর্ঘ্যরে চার লেনের এই সড়কের সৌন্দর্যবর্ধন ও প্রশস্তকরণ প্রকল্পে ৩ কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয় করা হচ্ছে।

রোহিঙ্গা সমস্যাকে একটি মানবিক সংকট হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যতদিন মিয়ানমার সরকার এসব মানুষকে ফেরত না নেবে, ততদিন মানিবক সহায়তা অব্যাহত রাখা হবে। কক্সবাজারে


দেশী বিদেশী পর্যটকেরা বিনোদনের জন্য আসেন। পর্যটন এলাকার সৌন্দর্যের বিষয়টি চিন্তা করে রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে হাতিয়ার ঠেঙ্গাচরে পুনর্বাসন করা হবে।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ৭৮ কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ সড়কের কাজ শেষের পথে। ২ কিলোমিটার মিসিং লিংক এর কাজ দ্রুত শুরু হবে। আগামী এপ্রিল মাসেই কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই উদ্বোধন করবেন। সড়কটি পর্যটন বিকাশে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে।

তিনি আরো বলেন, পর্যটনের কথা চিন্তা করে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ককে চার লেনে রূপান্তরের কাজও শীঘ্রই শুরু করবে সরকার। বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিনিধিদল এ মাসেই বাংলাদেশে আসবেন। তাদের সাথে এই সড়কে অর্থায়নের ব্যাপারে কথা হবে। মিয়ানমার এবং ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ৮০২ কিলোমিটার ‘সীমান্ত সড়ক’ নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ কাজে সরকার ৫০০০ কোটি টাকার প্রকল্প তৈরী করেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কলাতলী মোড় থেকে হোটেল শৈবাল পয়েন্ট পর্যন্ত ‘ওয়াকওয়ে’ নির্মাণের কাজ নিয়ে জটিলতা কেটে গেছে। টাকার জন্য কাজ আটকে থাকবেনা। সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে কাজ শীঘ্রই শুরু হবে।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদ, জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন, সড়ক ও জনপদ বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকেীশলী তারেক ইকবাল, পুলিশ সুপার ড. ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. সিরাজুল মোস্তফা প্রমুখ।

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: