IQNA

23:59 - August 09, 2017
সংবাদ: 2603608
কায়েমে আলে মুহাম্মদ (আ.)-এর হুকুমতের আরও একটি সাফল্য হচেছ অধিক কল্যাণ ও বরকত৷তাঁর হুকুমতের বসন্তে সর্বত্র সবুজ-শ্যামল ও সাচছন্দময় হয়ে উঠবে৷ আকাশ থেকে বৃষ্টিবর্ষিত হবে এবং মাটি থেকে ফসল উৎপন্ন হবে ও ঐশী বরকতে ভরপুর হয়ে যাবে৷
ইমাম মাহদীর(আ.) রাষ্ট্রে আসমান ও জমিন থেকে বরকত অবতীর্ণ হবে

শাবিস্তানের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: ইমাম জাফর সাদিক (আ.)বলেছেন: আল্লাহ তায়ালা তাঁর কারণে আকাশে ও মাটিতে বরকতের বন্যা বইয়ে দিবেন৷ আকাশ থেকে রহমতের বৃষ্টি বর্ষিত হবে এবং মাটি থেকে ফসল উৎপন্ন হবে (গাইবাতে তুসী,হাঃ১৪৯, পৃ.-১৮৮)৷

সম্পর্কে রাসূল (সা.)বলেছেন: আল্লাহ তায়ালা উম্মতে মুহাম্মদিকে স্বনির্ভর করবেন এবং সকলেই ইমাম মাহদী (আ.)-এর ন্যায়পরায়ণতার অন্তর্ভূক্ত হবে৷ ইমাম মাহদী একজনকে বলবেন যে ঘোষণা করো:

কার সম্পদের প্রয়োজন আছে? তখন সবার মধ্য থেকে মাত্র একজন বলবে আমার! তখন ইমাম (আ.) তাকে বলবেন: ক্যাশিয়ারের কাছে যেয়ে বল, ইমাম মাহদী (আ.) আমাকে পাঠিয়েছেন এবং আমাকে টাকা দিতে বলেছেন৷ তখন ক্যাশিয়ার তাবে বলবে: তোমার জামা (আরবী লম্বা জামা) নিয়ে এস, অতঃপর তার জামা অর্ধেকটাকায় ভরে দেওয়া হবে৷ সে ওই টাকা গুলোকে পিঠে করে নিয়ে যেতে যেতে ভাববে: উম্মতেমুহাম্মদির মধ্যে আমি কেন এত লোভী৷ অতঃপর সে তা ফিরিয়ে দিতে চাইবে কিন্তু তার কাছ থেকে তা গ্রহণ করা হবে না এবং তাকে বলা হবে: আমরা যা দান করি তা আর ফেরত নেই না(বিহারুল আনওয়ার, খণ্ড- ৫১, পৃ.-৯২)৷

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: