IQNA

22:11 - May 31, 2019
সংবাদ: 2608644
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের উগ্র জাতীয়তাবাদী বৌদ্ধ ভিক্ষু উয়িরাথুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যু করেছে দেশটির একটি আদালত। মঙ্গলবার ইয়াঙ্গুনের একটি আদালত তার বিরুদ্ধে এ গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যু করেছে বলে বুধবার জানিয়েছেন দেশটির পুলিশের মুখপাত্র মিও থু সো।

বার্তা সংস্থা ইকনা: উগ্র জাতীয়তাবাদী নেতা উয়িরাথুর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হয়েছে বলে তিনি জানান। তার বিরুদ্ধে রাখাইনের সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর হামলার উসকানি দেওয়ার অভিযোগ আছে।

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর সমর্থক হলেও অং সান সু চি সরকারের কট্টর সমালোচক উয়িরাথু। সংবিধান পরিবর্তন চেষ্টা করে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা হ্রাস করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তার। এ ছাড়া অং সান সু চি সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও তুলেছে উয়িরাথুর।

যে আইনে উয়িরাথুর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, দোষী সাব্যস্ত হলে তার সর্বোচ্চ তিন বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে বলে জানা গেছে।

দেশটির প্রভাবশালী বৌদ্ধ ভিক্ষু উয়িরাথু প্রায়ই রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দিয়ে থাকেন। এ মুসলিম সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে প্রতিহিংসা ছড়িয়ে স্থানীয় বৌদ্ধদের ক্ষেপিয়ে তোলার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, ‘জঙ্গি হামলার’ অভিযোগ তুলে ২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনে মুসলিম সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তাদের সঙ্গে স্থানীয় বৌদ্ধরা যোগ দিলে প্রায় সাড়ে ৭ লাখ রোহিঙ্গা প্রতিবেশী বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেয়।

এই অভিযানে কয়েক হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা করা হয় বলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো দাবি করেছে। হত্যাকাণ্ড ছাড়াও নারী-শিশুদের ওপর নিপীড়ন, গণধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট চালায় মিয়ানমার বাহিনী। রোহিঙ্গা গণহত্যা উদাহরণ হিসেবে পাঠ্যপুস্তকে উল্লেখ করার মতো বলে জানায় জাতিসংঘ। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: