IQNA

16:10 - June 08, 2019
সংবাদ: 2608691
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরান বলেছে, দেশটির পেট্রোকেমিক্যাল শিল্পের ওপর আমেরিকার নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘটনা তেহরানের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আলোচনায় বসার প্রস্তাবের অসারতা প্রমাণ করেছে।

নয়া নিষেধাজ্ঞা ট্রাম্পের আলোচনার প্রস্তাবের অসারতা প্রমাণ করেছে: ইরানপার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভি আজ (শনিবার) তেহরানে বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসার যে প্রস্তুতি ঘোষণা করেছেন সেকথা যে মিথ্যা ও প্রতারণা তা মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই প্রমাণ হয়ে গেল।

গত সপ্তাহে জাপান সফরে গিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। তার ওই প্রস্তাবকে 'প্রতারণা' বলে ইরান তাৎক্ষণিকভাবে তা প্রত্যাখ্যান করেন।

আলোচনার এ প্রস্তাবের মধ্যেই গতকাল (শুক্রবার) মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় ইরানের সবচেয়ে বড় ও লাভজনক পেট্রোকেমিক্যাল গ্রুপ পিজিপিআইসি’র ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

মুসাভি নিষেধাজ্ঞা আরোপের এ ঘটনাকে আন্তর্জাতিক আইনের ‘ভয়ঙ্কর লঙ্ঘন’ বলে অভিহিত করেন। তিনি ওয়াশিংটনের এ ‘দস্যুবৃত্তি’ প্রতিহত করার জন্য বিশ্বের দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ওয়াশিংটনের এ আচরণ বহুমুখী বিশ্বব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়বে। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আমেরিকার এ পদক্ষেপকে ‘অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদ’ বলে অভিহিত করেন।

ইরানের ওপর আমেরিকার ‘সর্বোচ্চ চাপ’ সৃষ্টির প্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে উল্লেখ করে আব্বাস মুসাভি বলেন, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টরাও তেহরানের বিরুদ্ধে এ ধরনের চাপ প্রয়োগ করে কোনো ফল পাননি। কাজেই বর্তমান মার্কিন প্রশাসনও চাপ প্রয়োগের এ নীতির ব্যর্থতা প্রত্যক্ষ করবে।  iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: