IQNA

9:58 - November 06, 2019
সংবাদ: 2609579
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আসামের বিজেপি সরকার ঘোষণা দিয়েছে, দুটির বেশি সন্তান হলে তাদের কোনো সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দেয়া হবে না। ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে এই নীতি কার্যকর করা হবে। তবে আসাম সরকারের এই ঘোষণার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্ট (এআইইউডিএফ) প্রধান বদরুদ্দিন আজমল। তিনি অভিযোগ করেছেন, আসামে ধর্মের নামে মেরুকরণের রাজনীতি অব্যাহত ।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: সরকারি চাকরি পাওয়ার আশা নেই মুসলিমদের, তাই সরকারের দুই সন্তান নীতি মেনে চলা অর্থহীন। তবে আজমলের বক্তব্য নতুন করে বিতর্ক উস্কে দিয়েছে। বদরুদ্দিন বলেছেন, দুই সন্তানের নীতিতে বিশ্বাস করে না ইসলাম। এভাবে পৃথিবীর আলো দেখা থেকে কাউকে রোখা যায় না।
সরকার এমনিতেই আমাদের সরকারি চাকরি দিচ্ছে না। আমাদেরও কোনও প্রত্যাশা নেই। তাই আমাদের লোকজনকে বলতে চাই, যত ইচ্ছা সন্তান জন্ম দিন। তাদের শিক্ষিত করে তুলুন। যাতে নিজেরাই নিজেদের কর্মসংস্থান করতে পারে। ব্যবসা করতে পারে, নিজেদের সংস্থা খুলতে পারে অথবা খুলতে পারে দোকান, যেখানে হিন্দু ভাই-বোনদেরও চাকরি দিতে পারে তারা। বদরুদ্দিনের এই মন্তব্যের সমালোচনা করতে গিয়ে আবার বিতর্ক বাধিয়ে দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের বালিয়ার বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্রনারায়ণ সিংহ।
তিনি বলেছেন, ভারতে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন চালু না হলে, আগামী ৫০ বছরে এখানে হিন্দুত্ব আর নিরাপদ থাকবে না। হিন্দুত্বের অস্তিত্ব সঙ্কট দেখা দেবে। মানবজমিন

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: