IQNA

19:51 - January 26, 2020
সংবাদ: 2610108
আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ''অসংখ্য মুসলিম নাগরিককে রাষ্ট্রহীন করবে ভারতের নতুন নাগরিকত্ব আইন।'' এবার এই অ'ভিযো'গে সরব ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্যদের। শুধু তাই নয়, সংশো'ধিত নাগরিকত্ব আইন ও প্রস্তাবিত এনআরসি মুসলিম নাগরিকদের অধিকার খ'র্ব করছে বলেও অভিযোগ করেছেন তারা।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: এমনকী ভারতে বিরো'ধী স্বর দমিয়ে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। ল'ঙ্ঘি'ত হচ্ছে মানবাধিকারও। তাদের তৈরি খসড়া প্রস্তাবে জম্মু -কাশ্মীরের সাম্প্রতিক পরিস্থিতির কথাও তুলে ধরা হয়েছে। ইতিপূর্বে কেন্দ্র সরকার আয়োজিত জম্মু-কাশ্মীর সফর বাতিল করেছিলেন ইইউ'র সদস্যরা। নাগরিকত্ব আইন বি'রু'দ্ধে পাঁচ পাতার খসড়া প্রস্তাব তৈরি করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্যরা।

তাদের অভিযোগ, ''ভারতে নাগরিকত্ব আইন কার্যকর করতে যে পন্থা নেওয়া হয়েছে তা বিশ্বব্যাপী বৃহত্তর রাষ্ট্রহীনতার পরিসর তৈরি করবে। রাষ্ট্রহীন হবে বহু মুসলিম। অসংখ্য মানুষকে যার ফল ভুগতে হবে।'' ৭১তম সাধারণতন্ত্র দিবসে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের এধরণের প্রস্তাব কেন্দ্রের মোদি সরকারকে অ'স্ব'স্তিতে ফেলবে বলেই করছে ওয়াকিবহাল মহল।

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ১৫০ সদস্যের আনা খসড়া প্রস্তাব যে বিশ্বের দরবারে কেন্দ্রকে বড়সড় সমস্যা ফেলবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের আগামী অধিবেশনে এই খসড়া প্রস্তাব পেশ করা হবে বলে খবর। কী বলা হয়েছে এই প্রস্তাবে? খসড়া প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ''ভারতের সংশো'ধিত নাগরিকত্ব আইন ধর্মীয়ভাবে সংখ্যাল'ঘুদের জন্য বিভে'দমূলক। দুর্ভো'গ তৈরি করবে। দেশের বিরো'ধী কণ্ঠস্বর রো'ধ করা হচ্ছে। এমনকী মানবাধিকার সংগঠন, সাংবাদিক ও সরকার বিরো'ধীদের কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না।''

ভারত আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন ল'ঙ্ঘ'ন করছে বলেও অভিযোগ করেছেন ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ওই সদস্যরা। ইতিপূর্বে জাতিসংঘের তরফে এই আইনের স'মালো'চনা ইতিপূর্বে নাগরিক অধিকার খ'র্ব হওয়ায় ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের সমীক্ষায় বিশ্ব গণতন্ত্র সূচকে ১০ ধাপ নিচে নেমেছে ভারত। এরপর আগামী সপ্তাহে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অধিবেশনে এই প্রস্তাব পাস হলে আন্তর্জাতিক মহলে ভারতের মর্যাদা ক্ষু'ণ্ম হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।
সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন/ mtnews24

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: