IQNA

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ;
16:39 - February 17, 2020
সংবাদ: 2610246
তেহরান (ইকনা)- লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন: ইরানে শহীদদের জানাজায় এবং ইসলামী বিপ্লবের বিজয় বার্ষিকীতে জনগণের ব্যাপক উপস্থিতি, এটাই প্রমাণ করে যে, ইসলামিক প্রজাতন্ত্রের শাসনের পতনের জন্য শত্রুরা যে নকশা করেছে, তা ব্যর্থ হয়েছে এবং শত্রুদের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইসলাম প্রজাতন্ত্র ইরান এখনও স্থিতিশীল রয়েছে।

হাসান নাসরুল্লাহ বলেন: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফিলিস্তিন-ইসরাইল সংকট নিরসনের লক্ষ্যে ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’ নামের যে কথিত শান্তি পরিকল্পনা উত্থাপন করেছেন তার লক্ষ্য ফিলিস্তিন ইস্যুকে চিরতরে শেষ করে দেয়া।

তিনি রোববার সন্ধ্যায় টেলিভিশনে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে দেয়া এক ভাষণে আরো বলেন, “এটি কোনো চুক্তি নয়।ফিলিস্তিন ইস্যুকে বিশ্বের বুক থেকে মুছে ফেলার লক্ষ্যে ট্রাম্পের একটি প্রস্তাব। ফিলিস্তিনের কোনো দল বা গোষ্ঠী এ পরিকল্পনা মেনে নেবে না। আর এভাবেই এই মার্কিন ভ্রান্ত পরিকল্পনা মাঠে মারা যাবে।”

লেবাননের জনগণ ট্রাম্পের এ পরিকল্পনা তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যাখ্যান করায় সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি এ পরিকল্পনাকে লেবাননের জন্যও ভয়াবহ বিপদ বলে বর্ণনা করেন। হিজবুল্লাহ নেতা বলেন, লেবাননসহ অন্যান্য আরব দেশে অবস্থানরত ফিলিস্তিনি শরণার্থীদেরকে তাদের দেশের প্রত্যাবর্তনের সুযোগ না দেয়া হচ্ছে ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরির সবচেয়ে বিপজ্জনক দিক। শুধুমাত্র ইহুদিবাদী ইসরাইলের স্বার্থ ষোলকলায় পূর্ণ করার লক্ষ্যে এ পরিকল্পনা উত্থাপন করা হয়েছে।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ট্রাম্প প্রশাসন দু’টি ভয়াবহ অপরাধ করেছে। এর একটি হচ্ছে, ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লেঃ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও ইরাকের হাশদ আশ-শাবি প্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসকে হত্যা করা এবং দ্বিতীয়টি হচ্ছে, কথিত ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি উত্থাপন করা।

তিনি ট্রাম্প প্রশাসনকে আমেরিকার ইতিহাসের সবচেয়ে দাম্ভিক, অন্যায়কারী ও দুর্নীতিবাজ প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিহিত করে বলেন, পশ্চিম এশিয়ার প্রতিরোধ শক্তির সঙ্গে ওয়াশিংটনকে সরাসরি সংঘাতের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এই সংঘাতে আমেরিকার পরাজয় অবশ্যম্ভাবী বলে মন্তব্য করেন হিজবুল্লাহ মহাসচিব। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: