IQNA

20:37 - March 17, 2020
সংবাদ: 2610430
তেহরান (ইকনা)- ইরাকের পবিত্র নগরী কারবালায় অবস্থিত হযরত আব্বাস (আ.)এর মাযারের অন্তর্গত হস্তলিখিত পাণ্ডুলিপি সংস্কার সেন্টারে পবিত্র কুরআনের প্রাচীন ও বিরল পাণ্ডুলিপি সংস্কার করা হয়েছে। এই পাণ্ডুলিপিটি ষষ্ঠ শতাব্দীর অন্তর্গত।

হযরত আব্বাস (আ.)এর মাযারের অন্তর্গত হস্তলিখিত পাণ্ডুলিপি সংস্কার সেন্টারের প্রধান “লাইছ লতিফী” বলেছেন: পবিত্র কুরআনের এই পাণ্ডুলিপিটি ষষ্ঠ শতাব্দীর শেষ দিকে লেখা হয়েছে। সূরার নামগুলো জাফরান দিয়ে লেখা রয়েছে এবং আয়াতসমূহ কালো কালি দিয়ে লেখা হয়েছে। এছাড়াও পৃষ্ঠার পাশে ফুল অঙ্কিত করে সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হয়েছে।

লাতিফী আরও বলেছেন: প্রথমে এই পাণ্ডুলিপির সকল শিট, কভার এবং এর পৃষ্ঠার খণ্ডন বা ফ্র্যাকচারের জন্য পর্যালোচনা করা হয়েছে এবং তারপরে আমরা হযরত আব্বাস (আ.)এর মাযারের দক্ষ প্রযুক্তিগত দল দ্বারা সংস্কারের কাজ শুরু করা হয়েছে।

এই পাণ্ডুলিপিটি অত্যাধুনিক সিস্টেমের মাধ্যমে সংস্কার করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পৃষ্ঠাসমূহ মেরামতের জন্য জাপানের প্রাকৃতিক শীট এবং প্রাকৃতিক আঠা ব্যবহৃত হয়েছে। পৃষ্ঠাগুলো সংস্কার করার পর সেগুলো তুলোর সুতো দিয়ে সেলাই করা হয়েছে এবং এর কভারের জন্য প্রাকৃতিক চামড়া ব্যবহার করা হয়েছে। প্রাচীন ও মূল্যবান এই পাণ্ডুলিপিটি হযরত আব্বাস (আ.)এর মাযারে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন: কুরআনের এই সংস্করণটির মূল সংরক্ষণ করার জন্য, কম্পিউটারের একটি অনুলিপি তৈরি করা হয়েছে যাতেকরে মূল কপিটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে এটি ব্যবহার করে সেটি পুনরায় সংস্কার করা যায়। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: