IQNA

17:16 - June 04, 2020
সংবাদ: 2610904
তেহরান (ইকনা): ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানে আজ (বৃহস্পতিবার) মার্কিন সমর্থিত সাবেক স্বৈরাচারী শাহ সরকারের বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী গণ অভ্যুত্থানের ৫৭তম বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ ছিল ছুটির দিন। প্রতি বছর ফার্সি খোরদাদ মাসের ১৫ তারিখে (৪ জুন) এ দিবসটি পালিত হয়।

১৯৬৩ সালের এই দিনে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রতিষ্ঠাতা ইমাম খোমেনী (রহ.)-কে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সারা ইরানের রাস্তায় নেমে এসেছিলেন লাখ লাখ বিপ্লবী জনতা। পার্সটুডে

তৎকালীন পাহলাভি শাহ সরকার ইমামের বিপ্লবী কণ্ঠরোধ করার লক্ষ্যে তাঁকে আটক করেছিল। ইমাম খোমেনী (রহ.) ১৩ খোরদাদ ইরানে মার্কিন ষড়যন্ত্রের স্বরূপ এবং তা বাস্তবায়নে শাহ সরকারের ভূমিকা তুলে ধরে ভাষণ দেয়ার পর তাকে আটক করা হয়।

এর প্রতিবাদে ১৫ খোরদাদ তেহরান ও কোমসহ সারাদেশে লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানান। পাহলাভি শাহ সরকারও জনতাকে নিষ্ঠুর হাতে দমন করতে তার নিরাপত্তা বাহিনীকে লেলিয়ে দেয়। রাজপথে শহীদ হন হাজার হাজার মানুষ।

শাহ সরকার অবশ্য ঘোষণা করেছিল ১৫ খোরদাদ মাত্র ১২৩ জন নিহত হয়েছে। কিন্তু ইসলামি বিপ্লবের সমর্থকরা মনে করেন, ১৯৬৩ সালের ১৫ খোরদাদ সারাদেশে প্রায় ১৫ হাজার মানুষ শহীদ হয়েছিলেন।

ওই ঘটনার ১৫ বছর পর ১৯৭৯ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ইসলামি বিপ্লব চূড়ান্তভাবে বিজয় লাভ করে এবং অত্যাচারী শাহ সরকারের পতন হয়। ইরান থেকে আমেরিকা তার সাম্রাজ্যবাদী হাত গুটিয়ে নিতে বাধ্য হয়। iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: