IQNA

20:33 - June 13, 2020
সংবাদ: 2610955
তেহরান (ইকনা): সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে: ১৯৩২ সালে সৌদি সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর প্রথম বারের মতো হজ বাতিলের বিষয়টি এদেশের কর্মকর্তারা পর্যবেক্ষণ করবে।

সৌদি আরবের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ঘোষণা করেছে: করোনার প্রাদুর্ভাবের পরে দেশটি এবারের হজের জন্য বেশ কয়েকটি বিকল্প বিবেচনা করবে।

সৌদি আরবে করোনাভাইরাস সংক্রামিত মানুষের সংখ্যা ১ লক্ষ ছাড়িয়ে যাওয়ার পরে এই বিবৃতি এসেছে।

২০২০ সালে টোকিও’র অলিম্পিক বিলম্বের ঘোষণার পরে সতর্কতা অবলম্বনের বিষয়ে সৌদি কর্মকর্তাদের উপর পূর্বের তুলনায় অধিক চাপ এসেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সৌদি এই কর্মকর্তা ফিনান্সিয়াল টাইমসকে জানিয়েছেন: এই ইস্যুটি সাবধানতার সাথে বিবেচনা করা হবে এবং বিভিন্ন বিকল্প পন্থাও বিবেচনা করা হবে। এরমধ্যে একটি পন্থা হচ্ছে হজযাত্রীর সংখ্যা স্বাভাবিক সংখ্যার তুলনায় অর্ধেকে নামিয়ে আনা। অবশ্য, সমস্ত পন্থাই মিটিংয়ে উপস্থাপন করা হয়েছে। তবে হজযাত্রীদের সুস্বাস্থ্যকেই অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে যে, তারা এ বছর হজ বাতিল করার বিষয়ে সৌদি কর্মকর্তাদের সাথে পরামর্শ করবে, কিন্তু সৌদি আরব এখনও সে সিদ্ধান্তের জবাব দেয়নি।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে এবছর সৌদি আরব ১ কোটি ২০ লাখ ডলার আয় করবে বলে ধারণা করা হয়েছিল। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: