IQNA

20:30 - July 05, 2020
সংবাদ: 2611083
তেহরান (ইকনা): পবিত্র কুরআন মহান আল্লাহর গ্রন্থ যা মানুষের হেদায়েতের জন্য নাযিল হয়েছে। আর এই পবিত্র গ্রন্থটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার জন্য যারা সেবা করে যাচ্ছেন, মহান আল্লাহ তাদেরকে বিশেষ সম্মান দান করেছেন।

এখন আপনাদের সম্মুখে যে বাস্তব কাহিনী তুলা ধরা হবে সেটি মিশরের আল-মোহান্দেসিন এলাকার নিবাসী ১০ বছরের বালক মোহাম্মাদের কাহিনী।

 

এক রাতে তার সাথে কিছু ঘটনা ঘটেছে, যার মাধ্যমে এই মিশরীয় বালকের আত্মমর্যাদা প্রকাশিত হয়েছে।

 

আত্ম-সম্মান বা আত্মমর্যাদা হলো অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ গুণ যা মানুষের নৈতিকতাকে সুন্দর করে তোলে। বিশেষত যখন কোনও ব্যক্তি অভাবগ্রস্ত থাকে এবং কোন ধনী ব্যক্তি সেই অভাবগ্রস্তকে অর্থ প্রদান করে, কিন্তু তিনি সেই অর্থ গ্রহণ না করে তা প্রত্যাখ্যান করে।

এই ঘটনাটি মিশরের কুরআন বিক্রয় করা এক বালকের ঘটনা যা আল-ইয়াউম সাবেয়’র ক্যামেরায় ধরা পরেছে। ভিডিওতে মিশরের জিযাহ প্রদেশের আল-মোহান্দেসিন এলাকার দশ বছরের বালক মুহাম্মাদের দৃঢ় আত্মমর্যাদা খুব ভাল ভাবে ফুটে উঠেছে।

 

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে, লিবিয়ার এক যুবক মুহাম্মাদকে সাহায্য করার জন্য ১ হাজার মিশরীয় পাউন্ড দেন। কিন্তু তিনি তা নিতে অস্বীকার করল এবং অবশেষে প্রত্যাখ্যান করল।

 

লিবিয়ার অনুদান প্রত্যাখ্যান করে মোহাম্মদ বলেন: “আমি আল্লাহর বাণী নিয়ে ভিক্ষা করি না এবং আমি কুরআনের বিক্রেতা এবং এটাই যথেষ্ট। আপনি যদি কুরআন কিনতে চান তাহলে কিনতে পারেন। আমি কুরআন বিক্রি ছাড়া অর্থ গ্রহণ করতে পারবো না”।


লিবিয়ার যুবক এই কিশোরের আত্মমর্যাদা দেখে তার মাথায় চুম্বন করেন। iqna

 
কুরআন বিক্রেতা বালকের আত্ম-সম্মানের গল্প + ভিডিও
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: