IQNA

19:20 - March 22, 2021
সংবাদ: 2612502
তেহরান (ইকনা): জাতিবিদ্বেষ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের হর্তাকর্তারা চুপ থাকতে চাইলেও এবার এ নিয়ে মুখ খুলেচেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। জর্জিয়ার এশীয়-আমেরিকান সম্প্রদায়ের শোকগ্রস্ত, ক্ষুব্ধ ও উদ্বিগ্ন প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলার পরে এমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংক্ষিপ্ত কিন্তু জোরালো বক্তৃতা দেন তিনি। 
কোনো রকম রাখঢাক না করে জো বাইডেন বলেন, এশীয়-আমেরিকানদের বিরুদ্ধে হিংসা হু-হু করে বাড়ছে যুক্তরাষ্ট্রে। বিদেশিদের ঘৃণা করা ও জাতিবিদ্বেষের ঘটনাগুলোকে যুক্তরাষ্ট্র আর মেনে নিতে পারে না।
 
এদিকে গত সপ্তাহে আটলান্টার তিনটি ম্যাসাজ পার্লার তথা স্পা-তে আটজনকে গুলি করে হত্যা করে ২১ বছরের শ্বেতাঙ্গ যুবক রবার্ট এ লং। 
 
তদন্তকারীরা অর্থনৈতিক উদ্বেগ ও যৌন আসক্তিকে ওই হত্যাকাণ্ডের কারণ হিসেবে চালানোর চেষ্টা করলে অনেকেই তার প্রতিবাদ করেন। 
 
বলা হয়, ঘটনাটি তার চেয়েও বেশি কিছু। নিহতদের মধ্যে ছয়জনই এশীয় আমেরিকান নারী। অনেকেই এই বলে সরব হন যে এর পেছনে রয়েছে এশীয় আমেরিকান ও নারীদের প্রতি ঘৃণা। 
 
জো বাইডেন বলেন, এই ঘৃণার বিষ দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রকে তাড়া করে বেড়াচ্ছে। বহু সময় এসব নিয়ে নীরব থাকা হয়। কিন্তু নীরব থাকা মানে মেনে নেওয়া। আমাদের বলতেই হবে এসবের কথা। কিছু করতেই হবে।
 
জানা গেছে, এশীয়-আমেরিকান ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপগুলোর বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক আচরণের তিন হাজার আটশ ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে গত এক বছরে। কোথাও শারীরিক বা মৌখিক আক্রমণ, কোথাও বৈষম্য বা নাগরিক অধিকার না দেওয়ার মতো ঘটনা। সমাজকর্মীদের দাবি, অনেক ক্ষেত্রেই অভিযোগ করা হয় না। চোরাগোপ্তাভাবে চলতেই থাকে ঘটনাগুলো। আনন্দবাজার।
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: