IQNA

ক্ষুধার্ত মানুষের কাছে স্মরণীয় যিনি

4:32 - May 05, 2021
সংবাদ: 2612731
তেহরান (ইকনা): ২০২০ সালের ২৮ আগস্ট, দিনটি ছিল শুক্রবার। মিসরের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ আশ শারকিয়ার দরিদ্র মানুষের কাছে দিনটি শোকের। স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে তারা জানতে পারে, আশ শারকিয়ার বিশিষ্ট দানবীর ও সমাজ সেবিকা সুজান আল মুসলমানি মাত্র ৩৭ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেছেন, যিনি দরিদ্র অনাহারিদের ঘরে সময়মতো খাবার পৌঁছে দিতেন।

মৃত্যুর কয়েক বছর আগে ২০১৬ সালে প্রদেশের দরিদ্র মানুষের দ্বারে দ্বারে খাবার পৌঁছে দেওয়ার একটি স্থায়ী ব্যবস্থা তিনি করে যান। প্রতিষ্ঠা করেন ‘জাওয়াদ লিত-তানমিয়া’ নামের একটি দাতব্য সংগঠন। সংগঠনের অধীনে ‘জাওয়াদুল খায়ের’ নামের একটি ফ্রি সরাইখানাও চালু করেন। সারা বছর সরাইখানার পক্ষ থেকে আশ শারকিয়ার ক্ষুধার্ত মানুষকে খাবার দেওয়া হয়।

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে এ বছর সরাইখানায় ইফতারি বিতরণের বিশেষ কার্যক্রম চালু হয়েছে। এখানকার একজন দায়িত্বশীল বলেন, ‘রমজানের শুরু থেকেই প্রতিদিন আমরা অন্তত দেড় হাজার অভাবগ্রস্ত রোজাদারের বাড়িতে ইফতারসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি। পুরো রমজানের জন্য আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি। বছরের বিভিন্ন সময় প্রদেশের নানা ধরনের লোক সরাইখানায় খাবার প্রস্তুতে সহায়তা করতে আসে এবং সহায়তা করে তারা আনন্দিত হয়।’

প্রসঙ্গত, মিসরের আশ শারকিয়া প্রদেশের বর্ণাঢ্য ঐতিহ্য আছে। এটি দেশটির উত্তর দিকের প্রবেশদ্বার। জাগাজিগের রাজধানী শহর। একাধিক নবী-রাসুল (আ.), অসংখ্য সাহাবায়ে কিরাম (রা.) এবং অগণিত মুসলিম নেতার পদধূলিতে ধন্য আশ শারকিয়ার বালুমাটি। বর্তমানে ১৭টি ছোট-বড় শহর নিয়ে গঠিত প্রদেশটির আয়তন চার হাজার ৯১১ বর্গকিলোমিটার। এখানে প্রায় ৮০ লাখ নাগরিক বসবাস করে। তাদের মধ্যে ৭৫ শতাংশ গ্রামে এবং ২৫ শতাংশ শহরে থাকে। সূত্র: আল ইয়াওমুস সাবি ও উইকিপিডিয়া

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
captcha