IQNA

আরো দুই ফিলিস্তিনি শহীদ

'শহীদদের রক্ত ফিলিস্তিনি জাতির মুক্তির পথকে ত্বরান্বিত করবে'

20:01 - January 07, 2022
সংবাদ: 3471244
তেহরান (ইকনা): ইসরাইলি সেনা ও অভিবাসীদের হামলায় আরো দুই ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন। জর্দান নদীর পশ্চিম তীরে নাবলুস শহরের দক্ষিণে বালাতে শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি সেনাদের গুলিবর্ষণে ২১ বছর বয়সী এক ফিলিস্তিনি তরুণ শাহাদাত বরণ করেছে। এ ছাড়া পশ্চিম তীরের সাফা গ্রামেও ২৫ বছর বয়সী আরেক ফিলিস্তিনি তরুণকে এক ইহুদি অভিবাসী গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যা করেছে।
এই হত্যাকাণ্ড থেকে বোঝা যায়, ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলিদের অপরাধযজ্ঞ অব্যাহত রয়েছে। সম্প্রতি এক ফিলিস্তিনি বন্দীর মুক্তির পরপরই এ দুই ফিলিস্তিনি তরুণকে হত্যা করলো ইসরাইলিরা। তারা এমন সময় এ হত্যাকাণ্ড চালালো যখন ধারণা করা হচ্ছে ফিলিস্তিন ইস্যুটি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর অগ্রাধিকারযোগ্য বিষয় থেকে বের করে আনা হয়েছে। কেননা রাজতন্ত্র শাসিত আরব দেশগুলো বর্তমানে  বায়তুল মোকাদ্দাস দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নিয়েছে।
 
পাশ্চাত্যের বৃহৎ শক্তিগুলো ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলের অপরাধযজ্ঞ উপেক্ষা করে যাচ্ছে এমনকি এ সংক্রান্ত ভিয়েনা বৈঠকেও তারা ইসরাইলের স্বার্থ রক্ষার চেষ্টা করছে। এ ছাড়া, ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসও ইসরাইলি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি কৌশলগত সম্পর্কও বজায় রেখেছেন। এ অবস্থায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো চাইলে ইসরাইলি অপরাধযজ্ঞ  তুলে ধরে দখলদার এ শক্তির বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে পারে কিন্তু এ ক্ষেত্রে তারা চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।
 
যাইহোক, ২০২২ সালে এসে ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর সঙ্গে দখলদার ইসরাইলিদের সংঘর্ষ আগের চেয়ে বেড়েছে। এমনকি নতুন করে যুদ্ধের আশঙ্কাও উড়িয়ে দেয়া যায় না। কারণ অতীত অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ যোদ্ধারা কখনোই ইসরাইলি অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে নীরব থাকেনি। এ ছাড়া ইসরাইলি অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সমাজের নীরবতা এবং বেশ কিছু দেশ ইসরাইলের প্রতি সমর্থন জানানোয় ফিলিস্তিনিরা এটা উপলব্ধি করতে পেরেছে যে টিকে থাকার জন্য প্রতিরোধ সংগ্রামই একমাত্র পথ এবং আপোষ আলোচনা করে কোনো লাভ নেই।
 
যাইহোক, ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের মুখপাত্র তারেক ইজ্জাদ্দিন গতকাল দুই ফিলিস্তিনি তরুণের শাহাদাতের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ফিলিস্তিনিদের সশস্ত্র প্রতিরোধ অব্যাহত থাকবে এবং ইসরাইলিদের অপরাধযজ্ঞেরও জবাব দেয়া হবে। তিনি বলেন, শহীদদের রক্ত ফিলিস্তিনি জাতির মুক্তির পথকে ত্বরান্বিত করবে। পার্সটুডে
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
captcha