IQNA

তাফসীর ও মুফাস্সিরদের পরিচয়/ ৪

তাফসিরে "তাসনিম"; ইসলামের ইতিহাসে সবচেয়ে বিশদ তাফসীর

11:33 - September 24, 2022
সংবাদ: 3472526
তেহরান (ইকনা): তাফসিরে "তাসনিম" হল পবিত্র কুরআনের সবচেয়ে বিস্তারিত তাফসীর যা ইসলামের শুরু থেকে আজ অবধি তাফসির সংক্রান্ত ঘটনাবলীর সমন্বয়ে রচিত হয়েছে, যা আয়াতুল্লাহ আবদুল্লাহ জাওয়াদী আমলির ৪০ বছরের তাফসীর অধিবেশনের ফলাফল এবং  কুরআন, সুন্নাহ এবং আক্বল এই তিনটি প্রধান উৎস ছাড়াও, তিনি তার  তাফসিরের জন্য আরবি সাহিত্য এবং দার্শনিক ও রহস্যবাদীদের উক্তি ব্যবহার করেছেন।
"তাফসীরে তাসনিম" হল ইসলামের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত পবিত্র কুরআনের সবচেয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যাগুলির মধ্যে একটি। এই তাফসিরের নাম সূরা মুতাফ্ফিফীনের ২৭ এবং ২৮ নম্বর আয়াত থেকে নেওয়া হয়েছে:
وَمِزَاجُهُ مِنْ تَسْنِيمٍ عَيْنًا يَشْرَبُ بِهَا الْمُقَرَّبُونَ
তাতে তাসনীমের (বেহেশতী ঝরনার অবিমিশ্র সুরার) মিশ্রণ থাকবে, * এ একটি প্রস্রবণ, যা হতে (আল্লাহর) সান্নিধ্যপ্রাপ্তগণ পান করবে।
এই মহান কাজটি তাফসির অধিবেশনের ফলাফল যা ১৯৮০ সালে শুরু হয়েছিল এবং টানা চল্লিশ বছর পর ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে শেষ হয়েছে। এ পর্যন্ত তাফসিরে তাসনিমের ৬৩ খণ্ড প্রকাশিত হয়েছে এবং আশা করা যায় খণ্ডের সংখ্যা ৮৫তে পৌঁছাবে। ২০০৬ সালে ইসিসকো এই তাফসিরকে "ইসলামী এবং কুরআনিক অধ্যয়নের ক্ষেত্রে সেরা গবেষণা" হিসাবে বেছে নিয়েছিল।
 
"তাসনিম"-এর বৈশিষ্ট্য
তাফসির তাসনিম হল ফার্সি ভাষায় কুরআনের ধারাবাহিক তাফসিরগুলোর মধ্যে একটি। এই তাফসিরের কেন্দ্রীয় পদ্ধতিটি “আল-মিজান” তাফসিরের ব্যাখ্যার অনুরূপ, "কুরআন থেকে কুরআন" তাফসির। এই তাফসিরের তিনটি প্রধান উৎস, কুরআন, সুন্নাহ এবং আক্বল ছাড়াও, মুফাস্সির তাঁর অর্থ প্রকাশের জন্য অসংখ্য ক্ষেত্রে আরবি সাহিত্য এবং দার্শনিক ও রহস্যবাদীদের উক্তি ব্যবহার করেছেন।
তাফসিরে তাসনিমের পদ্ধতিকে "বিস্তৃত ইজতিহাদ পদ্ধতি" হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং এতে "কুরআন থেকে কুরআন", "কুরআন থেকে সুন্নাহ" এবং "কোরআন থেকে আক্বল" অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কার্যকরী পদ্ধতি হল "কুরআনের থেকে কুরআনের তাফসির"; কেননা তাফসিরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎস হল স্বয়ং কুরআন, যা তার নিজস্ব অভিব্যক্তি ও সাক্ষী।
আয়াতুল্লাহ আবদুল্লাহ জাওয়াদী আমলির মতে, কুরআনকে কুরআনে তাফসির করা হলো মহানবী (সা.) এবং আহলে বাইত (আ.)-এর তাফসিরের পদ্ধতি, যা যে কোনো তাত্ত্বিক ত্রুটি থেকে মুক্ত এবং কোনো ব্যবহারিক ত্রুটি থেকেও মুক্ত। ফলস্বরূপ, তাদের অনুসরণ করা অতি প্রয়োজন এবং তাদের অনুসরণের মাধ্যমে মুক্তি পাওয়া যায়।
বিষয়বস্তুর কাঠামো
তাফসিরে তাসনিমের লেখক প্রথমে একটি আয়াত বা কয়েকটি আয়াত নিয়ে আসেন এবং তারপর ৪টি অক্ষে এর ব্যাখ্যা ব্যাখ্যা করেন।
১ - তাফসীরের উদ্ধৃতি; 
২- তাফসির; 
৩- টিপস এবং ইঙ্গিত; 
৪ - রেওয়ায়তমূলক আলোচনা।
লেখকের জীবন
আবদুল্লাহ জাওয়াদী আমোলি (জন্ম ১৯৩৩) একজন দার্শনিক, আইনবিদ, কুরআনের মুফাসসির, হাওজায়ে এলমিয়া কোমের শিক্ষক এবং সমসাময়িক সময়ে শিয়া বিশ্বের বিশিষ্ট মারজায়ে তাকলিদ। তিনি আয়াতুল্লাহ বুরুজেরদী, ইমাম খোমেনী এবং আল্লামা তাবাতাবায়ী-এর অন্যতম ছাত্র ছিলেন এবং তিনি প্রায় ষাট বছর কোম ও তেহরানের মাদ্রাসাগুলিতে দর্শন, ইরফান, আইনশাস্ত্র এবং তাফসিরের ক্লাস নিচ্ছেন।

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
captcha