IQNA

20:31 - November 06, 2017
1
সংবাদ: 2604259
ইমাম হুসাইনের চল্লিশার আজাদারি পালন করার জন্য সারা বিশ্বে থেকে অগণিত মানুষ যেভাবে নাজাফ থেকে কারবালা পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করে তা শিয়াদের সিক্ত ও একতার পরিচয় বহন করে।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: ইমাম হুসাইন(আ.) তার কালজয়ী বিপ্লবের মাধ্যমে আমাদেরকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর শিক্ষা দিয়ে গেছেন। আর ইমাম হুসাইনের সেই মহান ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করার জন্য আজও কোটি কোটি মুসলমান তার জন্য শোক ও আজাদারি পালন করে।

আজ মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে হজের থেকে বড় জনসমষ্টি কারবালায় হাজির হয় এবং সেখানে কোন অঘটন ঘটে না এবং সুষ্ঠুভাবে ইমাম হুসাইনের আরবাইনের অনুষ্ঠান পালিত হয়। এটা শিয়াদের অফুরন্ত শক্তি ও একতার বিষয়টিই প্রমাণ করে।

বর্তমানে সন্ত্রাসীগোষ্ঠী দায়েশ সারা বিশ্বে হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে তারা ইমাম হুসাইনের চল্লিশার অনুষ্ঠানে কোন রকম শয়তানি করতে পারে না। তারা চায় কিন্তু আল্লাহর সৈনিকরা তা কঠোরভাবে দমন করে দেয়।

কারবালার ঘটনার পর রাসূলের আহলে বাইতকে বন্দি করে কুফা ও শামে নিয়ে যাওয়ার পর যখন তাদেরকে আবার মদিনায় ফিরিয়ে নেয়া হয় সেই পথে তারা কারবালায় আসেন এবং ইমাম হুসাইনের চল্লিশার প্রথম জিয়ারতকারী হিসাবে পরিগণিত হন।

ইমাম সাদিক(আ.) সাফওয়ানকে বলেন: চল্লিশার দিন যখন দুপুর হবে তখন এভাবে ইমাম হুসাইনকে সালাম দিবে। عَنْ صَفْوَانَ بْنِ مِهْرَانَ قَالَ: قَالَ لِي مَوْلَايَ الصَّادِقُ سلام الله عليه فِي زِيَارَةِ الْأَرْبَعِينَ تَزُورُ عِنْدَ ارْتِفَاعِ النَّهَارِ وَتَقُولُ: السَّلَامُ عَلَى وَلِيِّ اللَّهِ وَحَبِيبِهِ السَّلَامُ عَلَى خَلِيلِ اللَّهِ وَنَجِيبِهِ. السَّلَامُ عَلَى صَفِيِّ اللَّهِ وَابْنِ صَفِيِّه‏... .

হে আল্লাহর ওলি ও হাবিব আপনার উপর সালাম, হে আল্লাহর বন্ধু ও নির্বাচিত বান্দা আপনার প্রতি সালাম। হে আল্লাহর প্রিয় বান্দা রাসুলের সন্তান আপনার প্রতি সালাম। শাবিস্তান
প্রকাশিত: 1
পর্যালোচনা করা হচ্ছে: 0
প্রকাশযোগ্য নয়: 0
আজ্ঞাতনামা
0
0
আমরা যারা এই অনুষ্টানে যেতে পারি নাই।দুরে থেকে কি ভাবে সাথি হব।কি ভাবে দরুদ ও সালাম প্রেরন করব।
অ্যাডমিন ইমামগণ যেসকল কাজের আদেশ দিয়েছেন সেগুলো করা এবং যেসকল কাজের নিষেধ করেছেন সেগুলো বর্জন করার মাধ্যমে তাদের সাথি হওয়া সম্ভব।
দুরে থেকে ইমাম হুসাইন (আ.)এর প্রতি দরুদ ও সালাম প্রেরণ:
খালি আকাশে নীচে এসে ডান-বাম দিকে তাকিয়ে ইমাম হুসাইন (আ.)এর মাযারের দিকে মুখ করে আকাশের দিকে তাকিয়ে বলতে হবে: «اَلسَّلامُ عَلَیْکَ یا اَباعَبْدِاللهِ، اَلسَّلامُ عَلَیْکَ وَ رَحْمَةُ اللهِ وَ بَرَکاتُهُ»
"আস-সালামু আলাইকা ইয়া আবা আব্দুল্লাহ, আস-সালামু আলাইকা ওয়া রাহমাতুল্লাহ ওয়া বারাকাতুহু" বলতে হবে।
-উসুলে কাফি, খণ্ড ৪, পৃ: ৫৭৫, ২নং হাদিস।
খালি আকাশের নীচে এসে আকাশের দিকে তাকিয়ে তিন বার বলতে হবে: «صَلَّى اللهُ عَلَیْکَ یا اَباعَبْدِاللهِ»
"সাল্লাল্লাহু আলাইকা ইয়া আবা আব্দুল্লাহ"
-কামিল আয-যিয়ারত, পৃ: ২৮৭, ২নং হাদিস।
নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: