IQNA

সর্বোচ্চ নেতা
22:47 - February 27, 2019
সংবাদ: 2608028
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, আমেরিকার বিরোধিতা উপেক্ষা করে ইরান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে সম্পর্ক ও সহযোগিতা আরো বেশি শক্তিশালী করতে হবে। আমেরিকা বিশ্বব্যাপী বিবাদ-বিসংবাদ, সহিংসতা ও যুদ্ধ ছড়িয়ে দিতে চায় বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।

পার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্র্ট: ইরান সফররত আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ানের সঙ্গে বুধবার তেহরানে এক বৈঠকে এ মন্তব্য করেন তিন। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরান ও আর্মেনিয়ার জনগণের স্বার্থে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা শক্তিশালী করতে হবে। বিশ্বের কোনো দেশের জনগণের স্বার্থ ও অধিকার সংরক্ষিত হোক আমেরিকা তা চায় না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

দুই প্রতিবেশী দেশ ইরান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে ঐতিহাসিকভাবে সুসম্পর্ক বিদ্যমান ছিল বলে জানান আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী। তিনি বলেন, ইতিহাসের কোনো পর্যায়েই এই দুই দেশের সম্পর্কে কখনো ফাটল ধরেনি।  ইসলাম প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।  ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, কিন্তু আমেরিকার পক্ষে এসব বিষয় বোঝা সম্ভব নয়।

সাক্ষাতে আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী তার তেহরান সফরকে গঠনমূলক ও আশাব্যাঞ্জক বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, এ সফরে যেসব চুক্তি সই হয়েছে অচিরেই সেগুলোর বাস্তবায়ন শুরু করা হবে। আর্মেনিয়া কখনো ইরান বিরোধী কোনো তৎপরতায় জড়িত হবে না বলেও প্রতিশ্রুতি দেন পাশিনিয়ান।

গত অক্টোবরে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন আর্মেনিয়া সফরে গিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর ভাষায় বক্তব্য রাখেন। তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, কঠোর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে ইরানকে ‘শেষ করে’ দেয়া হবে। তবে বোল্টনের সফর শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ পর আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী দেশটির পার্লামেন্টে দেয়া এক বক্তব্যে বলেন, তিনি বোল্টনকে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, ইরানের সঙ্গে আর্মেনিয়ার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক অব্যাহত থাকবে। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: