IQNA

20:23 - March 29, 2019
সংবাদ: 2608226
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি তার দেশে চলমান প্রবল বন্যার ব্যাপারে শত্রুদের অপপ্রচার প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, শত্রুদের আকাঙ্ক্ষার বিপরীতে আল্লাহ তায়ালার ইচ্ছায় ইরানি জনগণের মধ্যে ঐক্য ও সংহতি শক্তিশালী হয়েছে। শত্রুরা বন্যাকে ব্যবহার করে ইরানি জনগণের ঐক্যের পাশাপাশি সরকারের সঙ্গে জনগণের সম্পর্কে ফাটল ধরানোর চেষ্টা করেছিল বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

বার্তা সংস্থা ইকনা: প্রেসিডেন্ট রুহানি গতকাল (বুধবার) ইরানের উত্তরাঞ্চলীয় বন্যা কবলিত এলাকাগুলো পরিদর্শনে গিয়ে এসব কথা বলেন। তিনি মাজান্দারান প্রদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সমন্বয় পরিষদের বৈঠকে আরো বলেন, বন্যায় ইরানি জনগণের জন্য দুর্বিসহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে ঠিক; তবে এই বন্যায় ইরানি জাতি তাদের ঐক্য, সংহতি, সহমর্মিতা ও ভ্রাতৃত্বের প্রমাণ দিয়ে শত্রুদের চরম হতাশ করেছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইল ও আমেরিকাসহ পাশ্চাত্যের কিছু গণমাধ্যমের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত কিছুদিন যাবত এই প্রচারণা চালানো হচ্ছিল যে, ইরানের দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের কর্তব্যে অবহেলার কারণে দেশটির বন্যা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে।

রুহানি বলেন, মার্কিনী ও ইহুদিবাদীরা ব্যাপক অপপ্রচার চালিয়ে আশা করেছিল, এবারের বন্যা ইরানি জনগণের মধ্যে তুমুল বিভেদ ও বিসংবাদের কারণ হবে। কিন্তু বাস্তবে ফল হয়েছে উল্টো এবং পাশ্চাত্যের সে আশার গুড়ে বালি পড়েছে।

ইরানি জনগণ সর্বাবস্থায় পরস্পরের পাশে থাকবে উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, জনগণ, সেনাবাহিনী ও অন্যান্য ত্রাণ সংস্থা এবারের বন্যায় তাদের ভ্রাতৃত্ব ও সহমর্মিতার চরম পরাকাষ্ঠা দেখিয়েছে।

ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে পাশবিক আখ্যায়িত করে হাসান রুহানি বলেন, এদেশের জনগণ কখনো আগ্রাসন ও চাপের কাছে নতি স্বীকার করেনি এবং এ নিষেধাজ্ঞাকেও তারা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ইরানের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে প্রবল বর্ষণের ফলে বর্তমানে ব্যাপকভাবে বন্যা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সরকারি কর্মকর্তাদের পাশাপাশি সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য ত্রাণ সংস্থা ও সাধারণ মানুষ ব্যাপকভাবে বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়েছে। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: