IQNA

23:00 - November 18, 2019
সংবাদ: 2609655
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কেউ যদি আমাদের কোন ত্রুটি ধরিয়ে দেয় তা গ্রহণ করতে হবে এবং সেই ত্রুটির সংশোধন করতে হবে। কেননা অন্যের নসিহতের প্রতি ভ্রুক্ষেপ না করলে আমাদের কোন উন্নতি হবে না। প্রকৃত প্রতীক্ষাকারী উপদেশ মান্য করে এবং নিজের মধ্যে সংশোধন করে।

বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: তোশামুদি যেমন খারাপ কাজ তেমনি অন্যের তোশামুদিতে খুশি হওয়ায় অতি খারাপ কাজ। আমিরুল মু’মিনিন হযরত আলী(আ.) বলেছেন: «لِیکُن اَحَب النّاسِ الیکَ المُشفقُ النّاصِح» নাসিহতকারী যেন তোমার দৃষ্টিতে সব থেকে ভাল মানুষ ও প্রিয় মানুষ হয়।

শেখ সাদিও বলেছেন: যতক্ষন বক্তার কোন ত্রুটি ধরা না হবে বা সমালোচনা করা না হবে ততক্ষন পর্যন্ত সে ভাল বক্তা হতে পারবে না।

আমাদের লেখনিতে, কাজে ও কর্মে, চাকরিতে, পরিচালনায় প্রশিক্ষনে কথা এবং চলন বলনে অনেক ত্রুটি থেকে যেতে পারে। কেননা কোন মানুষই ভুল ত্রুটির উর্দ্ধে নয়।

যদি কেউ আমাদের দূর্বলতা ও অক্ষমতাকে ধরিয়ে দেয় তার প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞ থাকা উচিত কেননা তার সমালোচনার কারনে। আমি একজন সফর মানুষ হতে পারব।

কেননা আয়না যদি আমাদের কোন ত্রুটি ধরিয়ে দেয় তাতে আয়না ভেঙ্গে কোন লাভ নেই বরং নিজেকে সংশোধন করাই উত্তম।

ইমাম জাফর সাদিক(আ.) বলেছেন: «اَحَبُّ اخوانی الَّی مَن اهدی الَیَّ عیوبی» সেই ব্যক্তি আমার কাছে সব থেকে প্রিয় যে আমার ত্রুটিগুলোকে হাদিয়া হিসাবে আমাকে ধরিয়ে দেয়।

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: