IQNA

0:02 - September 05, 2020
সংবাদ: 2611424
তেহরান (ইকনা): ইসলামবিরো'ধী কন্টেন্ট প্রকা'শের জন্য বরাবরই কু'খ্যা'ত ফরাসি ম্যাগাজিন শার্লি হেব্দো। ক'ট্ট'র বামপন্থী পত্রিকাটি মঙ্গলবার (০১ সেপ্টেম্বার) মহানবী হযরত মোহাম্মদ সাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে অসম্মান করে আবারও ব্যঙ্গচিত্র প্রকা'শ করেছে। তাদের জ'ঘ'ন্য এ আচ'রণের তী'ব্র প্র'তিবা'দ ও ক্ষো'ভ জানিয়েছে পুরো মুসলিম বিশ্ব।

২০০৬ সালে ব্য'ঙ্গা'ত্মক ওই কার্টুন প্রথম প্রকা'শ হয় ড্যানিশ পত্রিকা জিল্যান্ডস পোস্টেনে। তখনও বিশ্বজুড়ে প্র'তিবা'দ, বি'ক্ষো'ভ করেন মুসলমানরা। এক বিবৃতিতে ইরান, ফ্রান্সের ওই ম্যাগাজিনের ক'র্মকা'ণ্ডের তী'ব্র নি'ন্দা জানিয়েছে। বলা হয়, মহানবীকে নিয়ে কোনো ধ'রনের ক'টু'ক্তি, ব্য'ঙ্গা'ত্মক কা'র্টুন স'হ্য করবে না মুসলিম বিশ্ব।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সায়েদ খাতিবজাদে স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, মত প্রকাশের স্বাধীনতার অ'জুহা'তে ফরাসি ম্যাগাজিন শার্লি হেব্দো মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতি এবং একা'ত্মবা'দী বিশ্বাসে আ'ঘা'ত করেছে। তিনি শার্লি হেব্দোর ন্য'ক্কা'রজনক কাজকে উ'স্কা'নিমূলক আখ্যা দিয়েছেন। বলেন, তারা বিশ্বের প্রায় ২শত কোটি মুসলমানের ইসলামি মূলবোধ এবং তাদের বিশ্বাসকে অসম্মান করেছে।

শার্লি হেব্দোর বি'রু'দ্ধে কোনো ধ'রনের ব্যবস্থা নিতে অ'স্বী'কৃতি জানিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। ম্যাগাজিনের পক্ষ নিয়ে তিনি বলেন, শার্লি হেব্দোর বি'রু'দ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ স্বাধীন মত প্রকা'শের ওপর ভ'য়াব'হ আ'ঘা'ত। খাতিবজাদে বলেন, মত প্রকাশের স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তবে তা অবশ্যই সঠিক উপায়ে, শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান নি'শ্চিত এবং সবার ধর্মীয় অনুভূতিকে সম্মান জানিয়ে করা উচিৎ।

ইরানের অনেক ধর্মীয় পণ্ডিতরা ফরাসি ম্যাগাজিনের ইসলাম ধর্মবিরো'ধী তৎ'পরতার নি'ন্দা জানিয়েছেন। দেশটির কওম শহরের জ্যেষ্ঠ ধর্মবিশারদ মোহাম্মদ রেজা জারিয়ে খোরমিজি তুর্কি গণমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সিকে বলেন, ফরাসি ম্যাগাজিন ইচ্ছাকৃতভাবে মুসলমানদের ধর্মীয় বিশ্বাসে আ'ঘা'ত করেছে।

বলেন, এরকম ঘৃ'ণি'ত ক'র্মকা'ণ্ড এটাই প্রথম নয়। আমাদের উচিৎ ক'ঠো'রভাবে এর প্রতিবা'দ জানোনো, নি'ন্দা করা। এ ধ'রনের কাজ ইসলামবি'রো'ধীরা করছে, মুলমানদের মূল্যবোধ এবং ইসলামের শীর্ষ ব্যক্তিদের অসম্মানের জন্য। ইরানের জ্যেষ্ঠ কার্টুনিস্ট মাজয়ার বিজানি নি'ন্দা জানিয়ে বলেন, এধ'রনের ষ'ড়য'ন্ত্র মুসলমান এবং ইসলামের শ'ত্রুরা বহুদিন ধ'রে করে আসছে।

গেলো সপ্তাহে, সুইডেনে পবিত্র কুরআন শরিফকে অস'ম্মান করা হয়। এ ঘটনার তী'ব্র নি'ন্দা জানায় মুসলিম দেশগুলো। ইরানের ইসলামি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির প্রধান আয়াতুল্লাহ আলিরেজা আরাফি বলেন, হা'স্যকর ক'র্মকা'ণ্ড। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিৎ ক'ঠো'রভাবে এর প্রতিবা'দ জানানো। যাতে এমন উ'গ্রবা'দী চিন্তা করার সা'হস কেউ না পায়।
সূত্র:mtnews24

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: