IQNA

ইউরোপিয়ান শিয়া ওলামা পরিষদের প্রধান:
19:07 - May 29, 2021
সংবাদ: 2612872
তেহরান (ইকনা): হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলেমিন সাইয়্যেদ আলী রেজা রাজাভি বলেছেন: কখনও কখনও আমরা নিজের এবং নিজেদের কাজের জন্য প্রতিযোগিতা করি। কিন্তু পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে, সৎকাজের ক্ষেত্রে একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতা কর। আপনি যখন ভালো কাজের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা করবেন, তখন স্বয়ং ঐ ভালো কাজটি অগ্রসর হবে এবং মানসিকভাবেও এটা আপনার মধ্যে ইতিবাচক প্রভব ফেলবে। এরফলে আপনি সর্বদা ভালো কাজের দিকে অগ্রগামী হবেন।

ব্রিটিশ ইসলামিক সেন্টার এবং লন্ডনে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের ব্রডকাস্টিং অফিসের পক্ষ থেকে “কুরআনী জীবনধারা” শিরোনামে ধারাবাহিক আলোচনায় ইউরোপিয়ান শিয়া ওলামা পরিষদের প্রধান হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলেমিন সাইয়্যেদ আলী রেজা রাজাভি বলেছেন: হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলেমিন সাইয়্যেদ আলী রেজা রাজাভি বলেছেন: কখনও কখনও আমরা নিজের এবং নিজেদের কাজের জন্য প্রতিযোগিতা করি। কিন্তু পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে, সৎকাজের ক্ষেত্রে একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতা কর। আপনি যখন ভালো কাজের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা করবেন, তখন স্বয়ং ঐ ভালো কাজটি অগ্রসর হবে এবং মানসিকভাবেও এটা আপনার মধ্যে ইতিবাচক প্রভব ফেলবে। এরফলে আপনি সর্বদা ভালো কাজের দিকে অগ্রগামী হবেন। আর এরফলে আপনি এমন দলের অংশ হবেন যারা সর্বদা ভাল কাজ করে এবং মহান আল্লাহ ও মানবতার সেবা করে।
হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলেমিন সাইয়্যেদ আলী রেজা রাজাভি বক্তব্যটি নীচে তুলে ধরা হল:
অসীম দয়াময় ও অনন্ত করুণাময় আল্লাহর নামে

فَاسْتَبِقُواْ الْخَيْرَاتِ

সুতরাং তোমরা (হে মুসলমানগণ! বিবাদ পরিহার কর এবং) কল্যাণে অগ্রগামী হও। সূরা বাকরা, আয়াত ১৪৮
কখনও কখনও আমরা নিজের এবং নিজেদের কাজের জন্য প্রতিযোগিতা করি। কিন্তু পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে, সৎকাজের ক্ষেত্রে একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতা কর। যেমন: কুরআন তিলাওয়াত করা অথবা সঠিক সময়ে নামাজ আয়াদ করা।
আপনি যখন ভালো কাজের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা করবেন, তখন স্বয়ং ঐ ভালো কাজটি অগ্রসর হবে এবং মানসিকভাবে এটা আপনার মধ্যে ইতিবাচক প্রভব ফেলবে। এরফলে আপনি সর্বদা ভালো কাজের দিকে অগ্রগামী হবেন। আর এরফলে আপনি এমন দলের অংশ হবেন যারা সর্বদা ভাল কাজ করে এবং মহান আল্লাহ ও মানবতার সেবা করে।
কিন্তু আপনি যখন নিজের জন্য কিছু করবেন, তখন আপনি নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি খুঁজে পাবেন এবং আপনি এর ফলাফল ও শেষ পরিণতির বিষয়ে চিন্তা করবেন না। আর এজন্য পবিত্র কুরআনে অনেক সুন্দরভাবে বলা হয়েছে:

فَاسْتَبِقُواْ الْخَيْرَاتِ

সুতরাং তোমরা (হে মুসলমানগণ! বিবাদ পরিহার কর এবং) কল্যাণে অগ্রগামী হও।
প্রথম কাতারে নামাজ আদায় করার চেষ্টা করুন। নিজ গৃহে সুন্দর আচরণ করার চেষ্টা করুন। আপনার ব্যক্তিগত জীবনের চেয়ে অন্যদের ক্ষেত্রে আরও বেশি উপকারী হওয়ার চেষ্টা করুন।
এটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে, মহান আল্লাহ বলেছেন: উত্তম কাজের ক্ষত্রে অগ্রগামী হও। ইমাম আলী (আ.) বলেছেন: “আজ প্রস্তুতির দিন এবং আগামীকাল প্রতিযোগিতার দিন। যে প্রতিযোগিতা জিতবে সে বেহেস্তে প্রবেশ করবে এবং যে হারবে সে শাস্তি পাবে।“
সুতরাং আমাদেরকে আরও ভালো কাজের জন্য একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতা করতে হবে। জীবনে আরও সৎ, নৈতিক ও নম্র হওয়ার চেষ্টা করতে হবে। যখন আমরা ইতিবাচক ইস্যুতে প্রতিযোগিতা করবো, তখন তিন’টি বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। প্রথমত: ব্যক্তিগত জীবনে ইতিবাচক ব্যক্তি হতে হবে এবং দ্বিতীয়ত: অন্যদেরকে ভালো কাজের জন্য উৎসাহিত করতে হবে। যখন এমন কোন দলের সাথে আপনি সংযুক্ত হবেন, যারা সর্বদা ইতিবাচক কাজ করে, তখন আপনিও ইতিবাচক কাজ করবেন।
তৃতীয়ত: অন্যায় ও পাপ কাজ থেকে বিরত থাকত হবে। পরিশেষে আপনার মধ্যে ইতিবাচক দিকগুলিই পরিলক্ষিত হবে এবং সৎকর্মশীল হবেন। iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: