IQNA

8:59 - November 16, 2021
সংবাদ: 3470986
তেহরান (ইকনা): আল-খলিফা সরকারের আদালত শিশু সুরক্ষা আইন লঙ্ঘন করে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে দুই মাস ধরে জিজ্ঞাসাবাদের অধীনে থাকা চার বাহরাইনি কিশোরের অস্থায়ী আটকের মেয়াদ বাড়িয়েছে।
বাহরাইনের চার কিশোরের সাময়িক আটকের মেয়াদ বাড়িয়েছে আল-খলিফাবাহরাইনের একটি আদালত চার কিশোরের আটকের মেয়াদ আরও ৩০ দিন বাড়িয়েছে।
 
বাহরাইনের বিশিষ্ট আইনজীবী ইব্রাহিম সারহানের বলেছেন, আল-সামাহিজ জেলার কিশোররা (১৮ বছরের কম বয়সী) সন্ত্রাসবাদী প্রসিকিউশন অফিসের নির্দেশে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬০ দিন প্রাক-বিচারে অস্থায়ী আটক রয়েছে। কারাগারে ৬০ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর তাদের কারাবাসের সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে।
 
এর আগে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বেশ কয়েকবার শিশু অধিকার সনদের অধীনে বাধ্যবাধকতা লঙ্ঘন করার জন্য এবং অপ্রাপ্তবয়স্কদের আটকে রাখার জন্য আল খলিফা সরকারকে অভিযুক্ত করেছে।
 
সালমান আল-খলিফা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে বাহরাইনে শিশুদের আটকের ঘটনা বেড়েছে।
 
এদিকে বাহরাইনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রশিদ আল খলিফা, উপসাগরীয় সহযোগিতা (GCC) মন্ত্রী পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগের পর দাবি করেছে যে, বিকল্প শাস্তি প্রকল্প এবং উন্মুক্ত কারাগারগুলি জাতীয়, সভ্য এবং মানবিক প্রকল্প।
 
তিনি ক্ষেপণাস্ত্র, ইউএভি এবং সাইবার-আক্রমণ ও লক্ষ্যযুক্ত মিডিয়া মোকাবেলা করার জন্য সুরক্ষা এবং অ্যাডভোকেসি প্রক্রিয়া পর্যালোচনা এবং অভিজ্ঞতা বিনিময়ের গুরুত্বের উপর জোর দেন।
 
এদিকে, ১৪ ফেব্রুয়ারি বিপ্লবী যুব জোট আল-খলিফার নতুন আইন তথা -জনগণের বিরুদ্ধে শাসনের ধারাবাহিক অপরাধের ক্ষেত্রে বিকল্প শাস্তিকে একটি নতুন অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করা- প্রতিবাদে জানিয়েছে, “স্বাধীনতা সকল রাজনৈতিক ও আইনি বন্দীদের অধিকার”।
 
বিপ্লবী যুব জোট গুরুত্বারোপ করে বলেছে: “বাহরাইনের জনগণের বিরুদ্ধে নিজেদের অপরাধ গোপন করার লক্ষ্যে এই আইনটি তৈরি করা হয়েছে”।  iqna
 

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য:
* captcha: